এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > গুলি-বোমা-ভোজালি-চপার-মনোনয়ন প্রত্যাহারের চাপে ব্যতিব্যস্ত উত্তরবঙ্গ

গুলি-বোমা-ভোজালি-চপার-মনোনয়ন প্রত্যাহারের চাপে ব্যতিব্যস্ত উত্তরবঙ্গ

গুলি-বোমা-ভোজালি-চপার – মনোনয়ন প্রত্যাহারের চাপে ব্যতিব্যস্ত উত্তরবঙ্গ। উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন এলাকায় মনোনয়ন প্রত্যাহারের জন্য চাপ সৃষ্টি করে গুলি-বোমা- ভোজালি – চপার প্রভৃতি ব্যবহার করে সন্ত্রাস ছড়ানো হচ্ছে । উত্তর দিনাজপুরে সন্ত্রাসের পর এদিন কোচবিহারের দিনহাটা ও মাথাভাঙ্গা দিনভর উত্তপ্ত থাকে। উত্তর দিনাজপুরে চোপড়ায় বিজেপি কর্মী ইউনুস আলির উপর হামলা চালিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে শাসক দলের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে উত্তর দিনাজপুরের এসপি শ্যাম সিংহ জানান ,” এলাকায় পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে। টহলদারিও চলছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

পরিস্থিতির উপর কড়া নজর রাখা হচ্ছে।” কোচবিহারের ফুলবাড়ী ও নিশিগঞ্জ-এ ধারালো অস্ত্র নিয়ে মিছিলের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। চোপড়ায় ১২ জন ও কোচবিহারে ২ জনকে গ্রেফতার করা হলেও ধৃতদের মধ্যে চারজন তৃণমূল সমর্থক জামিন যোগ্য ধারায় জামিন পেয়েছে বলে জানা গেছে । এদিকে কোচবিহারের কার্যকরী সভাপতি বিনয়কৃষ্ণ বর্মন অভিযোগ জানান , মাথাভাঙ্গার যুব তৃণমূল সভাপতি বাবলু সরকার রাতে যখন বাড়ি ফিরছিলেন তখন কিছু বিজেপি সমর্থক তাঁর শিশু কন্যার সামনেই পথ আটকে তাঁকে কোপাতে থাকে। এরপরই ৫ জন বিজেপি কর্মীর বাড়িতে আগুন ধরানোর অভিযোগ ওঠে। এই অভিযোগের পাল্টা জবাবে বিনয়কৃষ্ণ বাবু বলেন,” তাঁদের কর্মীকে খুনের চেষ্টার পরে বিজেপি নিজেরাই নিজেদের বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়।” অন্যদিকে দিনহাটায় যুব তৃণমূল কর্মীরা গাজনের মেলা দেখে ফেরার সময় তৃণমূল কর্মীদের হাতে আক্রান্ত হয় বলে অভিযোগ জানিয়ে তৃণমূল কর্মীদের বাড়িতে যুব তৃণমূল কর্মীরা সশস্ত্র হামলা চালায়। এদিন দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহ জানান,”রাতের অন্ধকারে দুষ্কৃতীরা হামলা চালালে স্থানীয় মানুষ প্রতিরোধ করে।” কোচবিহারের এসপি ভোলানাথ পান্ডের কথায়, “রাতের অন্ধকারে দুষ্কৃতীরা হামলা চালালে স্থানীয় মানুষ প্রতিরোধ করে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!