এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মনোনয়নের বাড়তি দিনে সুযোগ তুলল শাসকদলই, বলছে কমিশনেরই হিসেব

মনোনয়নের বাড়তি দিনে সুযোগ তুলল শাসকদলই, বলছে কমিশনেরই হিসেব

মনোনয়নের বাড়তি দিনে সুযোগ তুলল শাসকদলই, বলছে কমিশনেরই হিসেব। ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় বাড়ানোর পর নির্বাচন কমিশনের হিসাব অনুযায়ী তৃণমূলের তরফে গ্রাম পঞ্চায়েতে মনোনয়ন জমা পড়েছে ৬৬৩ টি, পঞ্চায়েত সমিতিতে ২৩৯ টি ও জেলা পরিষদে ২৫ টি। তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবিষয়ে জানান,”মনোনয়ন জমা দেওয়ার সুযোগ পাওয়া গিয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তাই কেউ কেউ মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।” এদিকে তৃণমূলের তরফে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা পরিষদে ২ টি বাড়তি মনোনয়ন জমা পড়েছে,বীরভূমে জেলা পরিষদে ৪ টি ও গ্রাম পঞ্চায়েতে ১৩ টি, আলিপুরদুয়ারে পঞ্চায়েত সমিতিতে ২ টি ও গ্রাম পঞ্চায়েতে ৮ টি মনোনয়ন জমা দিয়েছে রাজ্যের শাসকদল। উত্তর ২৪ পরগনায় বিরোধীদের তরফে জেলা পরিষদে মনোনয়ন জমা পড়েছে ১০ টি ও পঞ্চায়েত সমিতিতে ২ টি। আলিপুরদুয়ারের তৃণমূল জেলা সভাপতি মোহন শর্মা জানান, ”বর্ধিত মনোনয়নের দিনে আরও ভাল প্রার্থী পেয়েছি।”জানা গেছে পান্ডুয়া পঞ্চায়েত সমিতির বিদায়ী সহ-সভাপতি অসিত চট্টোপাধ্যায়, পান্ডুয়া ব্লক তৃণমূলের সভাপতি আনিসুল ইসলাম এবং হুগলি জেলা তৃণমূল যুব সহ-সভাপতি সঞ্জয় ঘোষ এঁদের অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণে অত্যন্ত অসন্তুষ্ট ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা ধনেখালির বিধায়ক অসীমা পাত্র। আর তাই মনোনয়ন পাশের বাড়তি দিনে অসীমা পাত্র এই তিন জনকে মনোনয়ন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন। এবিষয়ে সঞ্জয় ঘোষ জানান, ”টিকিট পাওয়ার পরেই দেওয়াল লেখা উচিত। কেউ বাড়াবাড়ি করলে, তার জবাব তাঁরাই দেবেন।” বাকি দুজন দলের সিদ্ধান্তকেই শেষ সিদ্ধান্ত হিসাবে মান্যতা দেবেন বলে জানিয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!