এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > রাজ্যের চার মন্ত্রীর চাপেই বাতিল কমিশনের নির্দেশিকা? সামনে এল বিস্ফোরক অভিযোগ

রাজ্যের চার মন্ত্রীর চাপেই বাতিল কমিশনের নির্দেশিকা? সামনে এল বিস্ফোরক অভিযোগ

রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়ন জমার বাড়তি সময় বাতিল করল নির্বাচন কমিশন। আজ সকাল ১০টা নাগাদ নতুন নির্দেশিকা জারি করেন বাতিল করে দেওয়া হয় পুরনো নির্দেশিকা। রাজ্য নির্বাচন কমিশন। ক্ষুব্ধ বিরোধী দলের নেতারা কমিশনের এই সিদ্ধান্তে শাসক দলের চক্রান্তের অভিযোগ করেছেন। তাঁরা অভিযোগ করেছেন যে ভয় দেখিয়ে মনোনয়নের মেয়াদ বৃদ্ধির আদেশ বাতিল করানো হয়েছে। মনোনয়ন বাতিল করায় রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে মেরুদণ্ডহীন বলে উল্লেখ করেছেন সুজন চক্রবর্তী। কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। এদিন সকাল থেকে রাজ্য নির্বাচন কমিশনে দফতরের সামনে নিরাপত্তা বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল ও ওই এলাকায় গাড়ি চলাচলও বন্ধ করে দেওয়া হয়।আর এরপরেই বেলা সাড়ে দশটা নাগাদ অফিসে এসেই সোমবারের মনোনয়নের মেয়াদ বৃদ্ধির নির্দেশিকা বাতিল করার কথা ঘোষণা করেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনার। সাথে নতুন এই নির্দেশিকার কথা জেলাশাসকদের দফতরেও পাঠিয়ে দেওয়া হয় বলে জানা গেছে।আর এই নিয়েই শাসকদলের বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ এনেছেন সিপিএম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী।তিনি এদিন দাবি করেন যে শাসকদলের নেতারাই ভয় দেখিয়ে নির্বাচন কমিশনকে এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তিনি সাথে আরো বিস্ফোরক দাবী করে বলেন যে, রাজ্যের চারমন্ত্রী ভয় দেখান নির্বাচন কমিশনারকে।তাঁরাই মঙ্গলবার সকালে রাজ্য নির্বাচন কমিশনারের বাড়িতে গিয়ে তাঁর উপর চাপ সৃষ্টি করেন। তাঁকে গালাগালি করেন তাই সেই চাপে পড়েই সোমবারের সিদ্ধান্ত বাতিল করেছেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনার।তবে সেই চারজন মন্ত্রী যে করা তা তিনি পরিষ্কার করে বলেননি। প্রসঙ্গত, এই সিদ্ধান্ত নিয়ে খুশি তৃণমূল সাংসদ তথা আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় নির্বাচন।তিনি মনে করছেন যে কমিশন ভুলের সংশোধন করেছে। আন্যদিকে, রাজ্য নির্বাচন কমিশনের আদেশের বিরুদ্ধে সোমবার রাতেই কমিশনকে মেল করেছিলেন তিনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!