এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > দু-দুজন উপমুখ্যমন্ত্রী রেখে জোট রক্ষার চেষ্টা ডামাডোলের কর্নাটকে, তবুও কি মিলবে অঙ্ক?

দু-দুজন উপমুখ্যমন্ত্রী রেখে জোট রক্ষার চেষ্টা ডামাডোলের কর্নাটকে, তবুও কি মিলবে অঙ্ক?

দু-দুজন উপমুখ্যমন্ত্রী রেখে জোট রক্ষার চেষ্টা ডামাডোলের কর্নাটকে, তবুও কি মিলবে অঙ্ক? দেখে নেওয়া যাক। বিজেপিকে ধরাশায়ী করলেও কর্নাটকে কংগ্রেস ও জেডি(এস) জোট এখন ক্ষমতা বন্টনের লড়াইয়ে মশগুল। রাজ্য কংগ্রেসের নেতা পরমেশ্বরের কথায় কুমারস্বামী মুখ্যমন্ত্রী হলেও তাঁর সাথে দুজন উপ-মুখ্যমন্ত্রীও থাকবেন। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীত্বের ভাগ নিয়ে  আশঙ্কা একেবারেই উড়িয়ে দিয়েছেন কুমারস্বামী।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এদিকে এই বিষয় নিয়ে অন্দরে দ্বন্দ্ব ক্রমশ বাড়ছে। পরমেশ্বরবাবু এদিন জানান বৈঠকের পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে এবং বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন রাহুল গান্ধী ও সোনিয়া গান্ধী। অন্যদিকে কংগ্রেস নেতা ডিকে শিবকুমারের কথায়, “একাই মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করবেন কুমারস্বামী। সেদিনই হবে আস্থা ভোট। তারপর মন্ত্রিসভার বাকি সদস্যরা শপথগ্রহণ করবেন।” সমস্ত আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে আঁচ করা গেছে একদিকে একটি উপ-মুখ্যমন্ত্রী পদে বসতে চলেছেন পরমেশ্বরবাবু ও অন্যদিকে সামঞ্জস্য বজায় রাখতে জেডি(এস) এর এক নেতাকে দেওয়া হবে অন্য আরেকটি উপ-মুখ্যমন্ত্রী পদ। জানা গেছে কুমারস্বামীর মন্ত্রী সভায় মোট ৩৩ জন বিধায়ক থাকবেন তার মধ্যে ২০ জন কংগ্রেসের এবং জেডি (এস)-এর ১০ জন বিধায়ক হিসাবে ঠাঁই পাবেন। যদিও রাহুল গান্ধী ও সোনিয়া গান্ধীর সাথে বৈঠকের পরই এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে। পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার সময় ইয়েদুরাপ্পা তাঁর বক্তব্যে কংগ্রেস ও জেডিএসের জোট নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেছিলেন। কংগ্রেস জেডিএস জোট নিয়ে রাজনৈতিক মহলেও জল্পনা চলেছে। এরপর ক্ষমতা দখলের টানা পড়েনে এই জোটের অনিশ্চয়তা প্রকাশ পেয়েছে। কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে এদিন স্পষ্টই জানিয়ে দিয়েছেন, “জাতীয় দল হওয়া সত্ত্বেও ছোট আঞ্চলিক দলকে সমর্থন করার পিছনে একটা দেওয়া-নেওয়ার সম্পর্ক থেকেই যাচ্ছে।”

Top
error: Content is protected !!