এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > জল্পনা বাড়ল পাহাড় রাজনীতিতে, দেশদ্রোহিতার অভিযোগে গ্রেপ্তার গুরুং ঘনিষ্ঠ নেতা

জল্পনা বাড়ল পাহাড় রাজনীতিতে, দেশদ্রোহিতার অভিযোগে গ্রেপ্তার গুরুং ঘনিষ্ঠ নেতা

গোর্খা মুক্তি মোর্চার নেতা বিমল গুরুং এর ঘনিষ্ঠ অন্য এক মোর্চা নেতা রয়াল রাই ‘কে কালিম্পং পুলিশ এদিন গ্রেফতার করলেন । বিস্ফোরক ও অস্ত্র মজুত করা সহ দেশদ্রোহিতার অভিযোগের ভিত্তিতে একাধিক মামলা ছিলো তাঁর বিরুদ্ধে। উল্লেখ্য মোর্চার প্রাক্তন জিটিএ সভাসদ তথা বিমল গুরুংয়ের অ্যাকশন স্কোয়াডের নেতা দাওয়া লেপচার ছায়াসঙ্গী ছিল এই রয়াল রাই। একাধিক ঘটনায় অভিযুক্ত রয়াল রাইকে পুলিশ বেশ কিছুদিন ধরেই খুঁজছিলো।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

পুলিশের নজর এড়াতে আত্মগোপন করে বিভিন্ন জায়গায় পালিয়ে বেড়াতে থাকেন তিনি। অবশেষে পেডং সাকিয়ং এলাকায় নিজের বাড়ি থেকে রয়ালকে গ্রেফতার করে পুলিশ।এরপর তাকে কালিম্পং আদালতে পেশ করা হলে দশ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বছরে পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে মোর্চার আন্দোলনের সময়ে পুলিশ এলাকায় একটি বাড়িতে প্রচুর বিস্ফোরক মজুত রাখার খবর পায়।সেই অস্ত্র ও বিস্ফোরক মজুত রাখার ঘটনায় মোর্চা নেতা বিমল গুরুং , দাওয়া লেপচা সহ অনেকের বিরুদ্ধে ইউএপিএ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়। সূত্র মারফত কালিম্পং পুলিশ খবর পায় রয়াল নিজের বাড়িতে লুকিয়ে রয়েছেন। সেই খবর অনুযায়ী পুলিশ তাঁর বাড়ি হানা দিলে সেখানে রয়াল’র সন্ধান মেলে এবং গ্রেফতার হন রয়াল। পুলিশ এবার রয়ালকে জেরা করে দাওয়া লেপচাকে গ্রেফতার করার লক্ষ্যে রয়েছে। গতবছরে পাহাড়ে উত্তাল পরিস্থিতিকে কেন্দ্র করে বিমল গুরুং সহ একাধিক মোর্চা নেতার বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে। আর সেই সমস্ত নেতাদের গ্রেফতারের জন্যেই রয়াল’র গ্রেফতার হওয়া জরুরী হয়ে উঠেছিলো।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!