এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বন্ধের গেরোয় নবান্নের নির্দেশিকায় আতান্তরে সরকারীকর্মীরা

বন্ধের গেরোয় নবান্নের নির্দেশিকায় আতান্তরে সরকারীকর্মীরা

বন্ধের গেরোয় নবান্নের নির্দেশিকায় সরকারীকর্মীরা আতান্তরে পড়েছেন। রাজী সন্ত্রাস করে মনোনয়ন জমা দিতে দেয়নি শাসকদল এই অভিযোগ এনে আগামীকাল ৬ ঘণ্টার বনধ ডেকেছে সিপিআইএম।কিন্তু পাল্টা দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যে রাজ্যে কোনো বাঁধ করা যাবে না। ফলে রাজ্যের সমস্ত সরকারি কর্মচারীকে নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে উপস্থিত থাকতে হবে।আর এই নিয়ে একটি নির্দেশিকা জারি করেছে নবান্ন। দেখে নেওয়া যাক কি কি আছে তাতে :-
১. রাজ্যের সমস্ত সরকারি কর্মচারীকে নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে উপস্থিত থাকতে হবে।
২.আগামীকাল রাজ্য সরকারের কর্মীরা বিশেষ কয়েকটি কারণ ছাড়া ছুটি নিতে পারবেন না।
৩. অর্ধদিবস ছুটিও নেওয়া যাবে না।
৪.ছুটি নিলে সেদিনের বেতন কাটা যাবে ও কর্মজীবন থেকে একদিন বাদ দেওয়া হবে।
৫.কাল ক্যাজ়ুয়াল লিভ গ্রাহ্য হবে না।
৬. আজ যাদের ছুটি আছে তাদের কাল অফিসে রিপোর্ট করতে হবে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

যে যে কারণে ছুটি নেওয়া যাবে :-

১) হাসপাতালে ভর্তি হলে।
২) বাড়িতে কেউ মারা গেলে।
৩) অসুস্থতার কারণে যদি আজ ছুটিতে থাকেন,তবে চাইলে কালও ছুটি নিতে পারবেন।
৪) চাইল্ড কেয়ার লিভ, মেডিকেল লিভ, আর্নড লিভ ও ম্যাটারনিটি লিভের জন্য যদি আজকের আগেই ছুটির আবেদন অনুমোদিত হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে কাল তিনি ছুটিতে ঠেকতে পারবেন।
তবে এই সব ক্ষেত্রেই উপযুক্ত প্রমান দিতে হবে।তা না হলে বেতন কাটা যাবে ও কর্মজীবন থেকে একদিন বাদ দেওয়া হবে।
আর এই নির্দেশিকা নিয়েই সরকারি কর্মীদের মাথা খারাপ হবার জোগাড়। কেননা কাল বনধ হলে একদিকে তাকে সফল করতে বানেরা রাস্তায় নামবে আর অন্যদিকে শাসকদল পুরোপুরি চেষ্টা করবে বনধ-কে অসফল করবে তাই অশান্তি যে কাল হবে তাঁর আঁচ করে যায়। ফলে কর্মীদের এখন এগোলে সর্বনাশ আর পিছলে নির্বংশ হবে মতো অবস্থা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!