এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > বকেয়া ডিএ খুব শীঘ্রই রাজ্য সরকারি কর্মীদের দিয়ে দেওয়া হবে

বকেয়া ডিএ খুব শীঘ্রই রাজ্য সরকারি কর্মীদের দিয়ে দেওয়া হবে

অবশেষে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য সুখবর, বকেয়া ডিএ খুব শীঘ্রই সরকারি কর্মীদের দিয়ে দেওয়া হবে বলে জানালেন রাজ্যের সরকারি আইনজীবী কিশোর দত্ত।কেন্দ্র সরকারি কর্মচারীদের ডি এ ক্রমশ বেড়েই চলেছে.কিন্তু রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডি এ ই মিলছে না। তাই রাজ্য সরকারি কর্মীদের ক্ষোভ অনেকদিনের। আর এই নিয়েই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন সরকারি কর্মীরা। যদিও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ডিএ মিটিয়ে দেওয়ার মৌখিক আশ্বাস দিলেও লাভ হয়নি, জারি ছিল রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আইনি লড়াই।এদিন আদালতে সরকার পক্ষের আইনজীবী জানিয়েছেন যে খুব শীঘ্রই কর্মীদের ডিএ বৃদ্ধি করবে রাজ্য। আগামী বছরের গোড়ার দিকেই রাজ্য সরকারি কর্মীরা বর্ধিত মহার্ঘভাতা পাবেন। যদিও কবে থেকে এই মহার্ঘভাতা বাড়বে,বা কত পরিমানে বাড়বে তা নিয়ে কিছু জানাননি তিনি।তাঁর দাবি বকেয়া ভাতা নিয়েও ভাবনাচিন্তা শুরু করেছে নবান্ন। একইসঙ্গে এই মামলাটির শুনানি যাতে আগামী মাসের শেষের দিকে হয়, আদালতের কাছে সেই আবেদন করেন কিশোর বাবু।আগামী ১৯ ডিসেম্বর মামলার ফের শুনানি।যদিও রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বক্তব্য যে মহার্ঘভাতা দিলেও কেন্দ্রের সাথে পার্থক্য হয়তো কমবে কিন্তু সমতুল হবে না।তাই এদিন মামলাকারীদের আইনজীবী মহম্মদ আমজাদ আলি বলেন, “বকেয়া মহার্ঘভাতা নিয়ে আমাদের মূল মামলা। সেদিকে আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাই আমরা। সেই সঙ্গে ২০০৬ সাল থেকে যে বকেয়া পড়ে রয়েছে তা মেটানোর জন্যও আমরা আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইছি।”১৯ তারিখের শুনানিতে রাজ্য ফের চাপে পড়তে চলেছে তেমনই ভাবছেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। তবে ডিএ মিললেও যতদিন না তা কেন্দ্রের সমান হচ্ছে ততদিন আন্দোলন ও মামলা চলবে বলে জানিয়েছেন মামলাকারী রাজ্য সরকারি কর্মীদের সংগঠনগুলি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!