এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বিজেপি প্রার্থীর ‘ধোলাই’ দিয়ে ‘উন্নয়ন’ দেখিয়ে ‘পুরস্কার’ পঞ্চায়েতের বাড়তি টিকিট

বিজেপি প্রার্থীর ‘ধোলাই’ দিয়ে ‘উন্নয়ন’ দেখিয়ে ‘পুরস্কার’ পঞ্চায়েতের বাড়তি টিকিট

মীর সামসুদ্দিন ওরফে চঞ্চল শাসকদলের মান বাঁচাতে নেমে পড়েছিলো ময়দানে।বাইরের কড়া নজরদারিকে উপেক্ষা করে যখম মহাকুমা শাসকের দফতরে মশার মতো সুরুৎ করে ঢুকে পড়েছিলো বিজেপির জেলা পরিষদের দুই প্রার্থী বিলাস লক্ষণ ও প্রস্তাবক তপন মন্ডল তখন সংবাদমাধ্যমকে প্রকাশ্যে রেখে কলার ধরে টেনে নিয়ে পাশের আদালত চত্বরে নিয়ে গনধোলাই দিলেন চঞ্চল।হুগলীর আরামবাগে জয়জয়কার শাসকদলের।এই পরাক্রমের পুরস্কার হিসাবে তার বৌদি রেহানা বেগমকে দেওয়া হল তিরোল পঞ্চায়েতের নৈসার গ্রামের ৩ নম্বর সংসদে প্রার্থীর পদ।ওই মহিলা সংরক্ষিত  পদে আগে প্রতিনিধিত্ব করছিলো সুজাহান বেগম।তাকে ‘গো টু পেভিলিয়ন’ এর ঝান্ডা দেখিয়ে দেওর ভাগ্যে শিকে ছিঁড়লো রেহানার।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই ঘটনার নিরিখে যুব নেতা কমল কুশারি বলেন,”যারা দলের একনিষ্ঠ কর্মী,তাঁরা দলের সম্পদ।তারা পঞ্চায়েতে থাকলে গ্রাম উন্নয়নের কাজ ভালে হবে।”চঞ্চলও আনন্দিত হয়ে বলেন যে ভালে কাজ করেই দল থেকে পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছে তিনি।বিজেপিকে এক ইঞ্চি মাটিও ছাড়বে না তারা এবং তার কাজ সে কথারই প্রমাণ।ওদিকে বিজেপি চঞ্চল সহ আরো কয়েকজনের নামে ৫ ই এপ্রিল মারধর,নির্বাচন সংক্রান্ত কাগজপত্রের ব্যাগ ছিনতাই এর জন্য অভিযোগ করেছে আরামবাগ থানায়।তাদের বিরুদ্ধ এ তদন্ত চললেও পুলিশ কাউকেই ধরেনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!