এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বীরভূমে বিজেপির তুরুপের তাস এখন অনুব্রত মন্ডলের পাশে বসে শাসকদলের সভায়

বীরভূমে বিজেপির তুরুপের তাস এখন অনুব্রত মন্ডলের পাশে বসে শাসকদলের সভায়

রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনে বীরভূমে সেরকম প্রার্থী দিতে পারেনি বিরোধীরা।একমাত্র চিত্রলেখা রায়ই বিজেপির মনোনীত প্রার্থী হিসাবে রাজনগর আসন থেকে মনোনয়ন জমা করেছিলো।আবার বৃহস্পতিবার মনোনয়ন প্রত্যাহারের দাবী হিসাবে আবেদনও করেছে।সেই তাকেই শুক্রবার আবার দেখা গেলো বোলপুর তৃণমূল কার্যালয়ে।কেন এমন উলটপুরাণ তা নিয়ে জল্পনা কিছু কম হয়নি রাজনৈতিক মহলে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

সম্প্রতি মনোনয়নপর্ব শেষ হলে এবার কী কাজ করতে হবে তা নিয়ে বোলপুরে তৃণমূল কমিটির বৈঠক হয়।জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট নেতারা এবং চিত্রলেখা দেবীও।কোথায় কী মনোনয়নপত্র জমা পড়েনি এবং ফর্ম- বি কাদের দেওয়া হবে তা নিয়েই আলোচনা করা হয় বৈঠকে।এমনটাই জানালেন জেলা সভাপতি।এদিন আলোচনার প্রাণ ছিলেন চিত্রলেখা দেবী।প্রশ্ন উঠছিলো বারবার যে তিনি কি চাপে মুখে পড়ে মনোনয়ন বাতিল করলেন নিজের?অনুব্রত বাবুকে প্রশ্ন করা হলে তিনি প্রশ্নের তীর ঘুরিয়ে দেন চিত্রলেখাদেবীর দিকে।তিনি বলেন-” এটি একান্তই পারিবারিক ব্যাপার।কারও কথায় কিছু হয়নি।”তারপর তাকে প্রশ্ন করা হয় প্রথমে বিজেপি দলে যাওয়ার যুক্তি কী তবে?তিনি জানান, ”বলছি তো, কিছু একটা হয়েছিল।” এখন সেটা যে কী তার জট তিনি খোলেননি।এছাড়া তাকে প্রশ্ন করা হয় তৃণমূল দলে থেকে কীভাবে কাজ করতে চান তিনি।তাতে চিত্রলেখা দেবী বলেন যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভালোবাসেন তাই দলে থাকতে চান।দলের সঙ্গে নাকি তিনি আগেও ছিলেন,আছেন আর থাকবেনও।এটা নিয়ে অনুব্রত বাবু  জানান-” যেহেতু ওঁর স্বামীও তৃণমূলের সক্রিয় সদস্য,তাই চিত্রলেখা যদি সক্রিয়ভাবে দল করবেন ভাবেন দলে সবসময় স্বাগত জানাই।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!