এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বাসন্তীর গোষ্ঠী দ্বন্দ্বকে কি ধামাচাপা দিতে চাইছে তৃণমূল, নেতা-মন্ত্রীর বক্তব্যে জল্পনা

বাসন্তীর গোষ্ঠী দ্বন্দ্বকে কি ধামাচাপা দিতে চাইছে তৃণমূল, নেতা-মন্ত্রীর বক্তব্যে জল্পনা

কয়েকদিন আগেই দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়েছে বাসন্তী।হয়েছে বোমাবাজি,চলেছে গুলি,আর সেই গুলির আঘাতে প্রাণ হারিয়েছেন অনেকে। বাদ যায়নি ছোট শিশুও। আর এবার সেই বাসন্তী নিয়ে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মন্তব্যে শুরু হয়েছে বিতর্ক। এদিন জয়নগরে দলের একটি কর্মী সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শোভনবাবু। সেখান থেকেই তিনি এদিন বাসন্তী নিয়ে বলেন যে বাসন্তীতে দলের দু’টি শিবিরের মধ্যে কোনও সংঘাত নেই। সংসারে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ হয়। মিটে যায়। দলের মধ্যে কোনও মন কষাকষি হলে তার সমাধান আমরা করে ফেলি।আবার অন্য দিকে তিনি বলেন মানুষের শান্তি বিঘ্নিত হলে কাউকে রেয়াত করা হবে না। ওই ঘটনায় যুক্ত দলের পতাকা কিংবা অন্য কোনও সংগঠনের ছাতার তলায় থাকলেও কাউকে রেয়াত করা হবে না। পুলিস ও প্রশাসনকে বলা হয়েছে স্বাধীনভাবে কাজ করতে। তিনি এও জানিয়ে দেন, দলের কেউ যদি ওই ঘটনায় ধরা পড়ে, তাহলে তাকে রক্ষার জন্য সংগঠন তদ্বির করতে যাবে না। ফলে সব মিলিয়ে দ্বন্ধ শুরু হয়েছে। একদিকে তিনি বলছেন দ্বন্দ্ব নেই আবার অন্যদিকে বলছেন হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে। পাশাপাশি পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, কেন বার বার বাসন্তীতে এমন ঘটনা হচ্ছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ভবিষ্যতে যাতে না হয়, সে ব্যাপারে কড়া হচ্ছে দল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে নজর রাখছেন।তিনি আরো বলে যে, বাসন্তীতে কোনও কোনও সময় ব্যক্তি বিবাদকে রাজনৈতিক রঙ দিয়ে দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে সেটা হয়েছে কি না, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!