এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > তোলাবাজির বধে নামছেন ‘কেষ্ট’ ,অনুব্রত মন্ডলের নয়া নির্দেশ

তোলাবাজির বধে নামছেন ‘কেষ্ট’ ,অনুব্রত মন্ডলের নয়া নির্দেশ

তোলাবাজির বধে নামছেন ‘কেষ্ট’ । তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের নয়া নির্দেশ।মাত্র দুদিনের মধ্যে এলাকার সমস্ত তোলাবাজদের জন্ম কুণ্ডলীর হিসাব আনতে বললেন তিনি।সভাপতির এই ধরণের তর্জন দিয়ে কাজ করানোর বিষয়ে অভস্ত রাজ্যের মানুষ।শুক্রবার বিকেলে মুরারইয়ের পশুহাটের মাঠে জনসভার আয়োজন করে তৃণমূল কর্তৃপক্ষ। সেই সমাবেশ থেকে অনুব্রত মন্ডল তিনি বলেন যে তিনি শুনেছেন জাজিগ্রাম ও চাতরা অঞ্চলে তৃণমূলের কোনো আদেশ ছাড়াই জোর করে যে তোলাবাজির পর্ব শুরু হয়েছে।এই ধরণের কার্যকে তিনি কোনো দিনও বরদাস্ত করবেন না। এরপর তিনি সি.আই সাহেবের উদ্যেশে বলেন যে তৃণমূলের কোনো পদাধিকার বা কোনো কর্মচারী এই তালাবাজির সঙ্গে সরাসরি যুক্ত থাকলে তাকে সাত দিনের মাথায় গ্রেফতার করুন।তার সাথে তিনি পরে বোঝা পড়া করে নেবেন। দুর্নীতির সঙ্গে তিনি কোনো দিনের জন্য আপস করতে রাজি নন কারণ তিনি চাননা মানুষকে ঠকিয়ে কেউ তার ক্ষতি করুক।সাধারণ মানুষের পাশে তিনি সবসময় থাকবেন।এনিয়ে তিনি আদেশ দেন ,, “তোলাবাজিতে দলের কেউ যুক্ত থাকলে দু’দিন পরে জনসভা থেকে তাদের বহিস্কার করা হবে।” তবে তিনি অনুব্রত, তাই ওইটুকুতেই থেমে যাওয়ার পাত্র তিনি নিন। পর মুহূর্তে তার নির্দেশ পুলিশকে লক্ষ্য করে, “শুধু দলীয় কর্মীদের নয় পুলিশকেও এ ব্যাপারে সক্রিয় হতে হবে।”
পাশাপাশি দলের জেলা সহ সভাপতি অভিজিত রানা সিংকে মঞ্চ থেকে অনুব্রত মণ্ডল নির্দেশ দেন প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে অভিযুক্তদের তাড়াতাড়ি বার করার। তিনি বলেন দলের কোনো কর্মী হলে ১০ ডিসেম্বরের সভা থেকে তিনি তাকে নিষ্কৃত করে দেবেন। এইদিন তিনি অভিযুক্তদের দয়া না দেখাবার কথা দিয়েছিলেন।তার কথায়,” যেখান অন্যায় হবে সেখানে মাথা তুলে দাঁড়াব। প্রতিবাদ করব। অন্যায় রুখব। ভয় করব না। যদি বিধায়কের লোক হয় তাকেও তাড়াব। যদি ব্লক সভাপতির লোক হয় তাকে আগে জেলে ঢোকাব। এটা আমার শেষ কথা।”,

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!