এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > পুজোতে উড়বে ড্রোন, থাকবে সিসিটিভি- নিরাপত্তার চাদরে মুড়ছে অভিষেকের-গড়

পুজোতে উড়বে ড্রোন, থাকবে সিসিটিভি- নিরাপত্তার চাদরে মুড়ছে অভিষেকের-গড়

বাঙালির শ্রেষ্ট উৎসব শারদোৎসব। আর সেই উৎসবে যাতে কোনোরকম বিশৃঙ্খলা না ঘটে তার কারনে পুলিশ প্রশাসনকে সর্বদা সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর মুখ্যমন্ত্রীর এই নির্দেশে সাড়া দিয়ে এবার ডায়মন্ডহারবারের পুজো মন্ডপে নজরদারি চালাতে এবং শান্তি স্থাপনে উদ্যোগী হল জেলা পুলিশ। ইতিমধ্যেই জেলার প্রতিটি পুজো মন্ডপে সিসিটিভি বসানোর ব্যাপারে বিভিন্ন ক্লাব কতৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

সোমবারই জেলার কোন থানায় কোন পুজো হচ্ছে এবং সেখানে কিভাবে যেতে হবে সেই ব্যাপারে একটি গাইড ম্যাপ প্রকাশ করা হয় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। যার উদ্বোধন করেন সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু শুধু দর্শনার্থীদের মন্ডপে পৌছে দিলেই তো হবে না, তাদের নিরাপত্তাতেও যাতে কোনোরুপ খামতি না থাকে সেই কারনে পুজোর দিনগুলিতে আকাশপথে ড্রোন দিয়ে নজরদারি চালাবে জেলা পুলিশ। এছাড়াও ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে কেউ কোনো অসুবিধের মুখে পড়লে যাতে সকলকে সাহায্য করা যায় সেই কারনে 25 টি পুলিশ সহায়তা কেন্দ্রও খোলা হয়েছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

পাশাপাশি রাস্তায় ভিড়ের সময় পকেটমারদের দৌরাত্ম রুখতে সাদা পোশাকের মহিলা ও পুরুষ পুলিশকেও নামানো হচ্ছে। এছাড়াও পুজোর দিনগুলিতে জনসাধারনের জন্য থাকছে পুলিশ কন্ট্রোল রুম। 24 ঘন্টা খোলা এই কন্ট্রোল রুমের নাম্বার হল 24978465। কিন্তু ঠিক কত পুজো হচ্ছে এবার এই ডায়মন্ডহারবারে? পুলিশ সূত্রের খবর, বিষ্নুপুরে 163, যার মধ্যে 4 টি মহিলাদের, ডায়মন্ডহারবারে 69টির মধ্যে দুটি মসিলাদের, ফলতাতে মহিলাদের দুটি পুজো সহ মোট 67 টি পুজো হচ্ছে। এছাড়াও মগরাহাটে 53 টি, উস্তিতে 38 টি, নোদাখালিতে 61 টি, মহেশতলায় 203 টি, বজবজে 69 টি, রামনগরে 36 টি এবং রবীন্দ্রনগরে 33 টি পুজো হচ্ছে এবারে। সরকারের সেভ ড্রাইভ, সেভ লাইফের ওপর প্রচারের পাশাপাশি পুজো মন্ডপগুলির সৌন্দর্যের ওপর ভিত্তি করেই প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় পুরস্কার দেওয়া হবে। সব মিলিয়ে পুজোর নিরাপত্তায় কোনো খামতি রাখতে চায় না ডায়মন্ডহারবার জেলা প্রশাসন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!