এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > পঞ্চায়েত মিটলেই ‘বেনোজল’ বার করার প্রক্রিয়া শুরু হবে তৃণমূলে? জল্পনা বাড়ালেন অভিষেক

পঞ্চায়েত মিটলেই ‘বেনোজল’ বার করার প্রক্রিয়া শুরু হবে তৃণমূলে? জল্পনা বাড়ালেন অভিষেক

রাত পোহালেই রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। কিন্তু তার আগে দলীয় প্রচারে গিয়ে তৃণমূলের ভবিষ্যতের রাজনীতির রূপরেখা নিয়ে বড়সড় জল্পনা বাড়ালেন বর্তমানে দলের অঘোষিত দুনম্বর নেতা তথা তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে সম্মিলিত বিরোধীরা যেমন দাবি করেছিলেন শাসকদলের ‘লাগামহীন সন্ত্রাসের’ জন্য বহু আসনে প্রার্থী দিতে পারেনি তারা, অন্যদিকে তেমনই বহু আসনে শাসকদলের মাথা ব্যাথার কারণ হতে চলেছে ‘গোঁজ প্রার্থী’, এমনিতেই এবার শাসকদলের টিকিট পাওয়ার চাহিদা ছিল তুঙ্গে। কিন্তু শেষপর্যন্ত শাসকদলের টিকিট না পেয়ে বহু দাপুটে নেতাই দাঁড়িয়ে গেছেন নির্দল প্রার্থী হিসাবে।

শাসকদলের শীর্ষনেতৃত্ত্বের তরফে বারবার এইসব নির্দল প্রার্থীকে বার্তা দেওয়া হয়েছে। দলীয় অনুশাসন মেনে প্রার্থীপদ প্রত্যাহার করে নিতে অনুরোধ করা হয়েছে, তাতে অনেক জায়গায় কাজ হলেও, বহু আসনে এখনো রায়ে গেছে গোঁজ প্রার্থী। ফলে শাসকদলের অন্দরে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে, এবারের নির্বাচনে বিজেপি-বামফ্রন্ট-কংগ্রেস নয়, শাসকদলের প্রধান মাথাব্যথার কারণ হতে চলেছে এইসব নির্দল প্রার্থীই। আর এইসবের পরিপ্রেক্ষিতে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাৎপর্যপূর্ণভাবে মন্তব্য করেন, যেই সব প্রার্থী আম অথবা কলা চিহ্ন নিয়ে কোনো দাদার হাত ধরে নির্বাচনে তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়ছেন পঞ্চায়েত ভোট মিটে যাওয়ার পরে এই আম ও কলা ও তাদের মদতদাতারা যাতে দলে না ফিরতে পারেন তার ব্যবস্থা করা হবে। ফলে, পঞ্চায়েত মিটলেই যে দল থেকে বেনোজল বার করার বড়সড় পদক্ষেপ নেওয়া হবে সে ব্যাপারে নিশ্চিত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!