এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাবুল সুপ্রিয়র নামে মানহানির মামলার নোটিশ অভিষেকের, পাল্টা দিলেন বাবুলও

বাবুল সুপ্রিয়র নামে মানহানির মামলার নোটিশ অভিষেকের, পাল্টা দিলেন বাবুলও

এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে আইনি নোটিশ পাঠালেন তৃণমূল কংগ্রেসের ডায়মন্ড-হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর গত ৩০ শে নভেম্বর আসানসোলে এক প্রকাশ্য সভামঞ্চ থেকে বাবুল সুপ্রিয় রাজ্যের কয়লা পাচারের সঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম জড়িয়ে দেন এবং আরো জানান যে তার জন্য প্রতি মাসে একটা মোটা টাকা অভিষেক বাবু নেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফ থেকে বাবুল সুপ্রিয়কে এক আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে বলে বাংলার এক বহুল প্রচারিত দৈনিকের দাবি। ওই দৈনিকে প্রকাশিত খবর থেকে জানা যাচ্ছে, বাবুল সুপ্রিয়কে পাঠানো নোটিশে লেখা আছে, বাবুল (সুপ্রিয়) সে দিন বলেছিলেন – এখানে (আসানসোলে) কয়লার ভয়াবহ সিন্ডিকেট চলছে। এর প্রভাব কী, তা সকলেই জানেন। ছোট ব্যানার্জি অর্থাত্‍ অভিষেক ব্যানার্জিকে ১৭-১৮ কোটি টাকা দেওয়া হয়। এই মন্তব্যই তাঁর সামাজিক সম্মানহানির সামিল বলে মনে করছেন অভিষেক (বন্দ্যোপাধ্যায়)। এরফলে বাবুল সুপ্রিয়কে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে বক্তব্য প্রত্যাহার করতে হবে, ক্ষমা চেয়ে ওই সব মন্তব্য প্রত্যাহার না করলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা আইনি চিঠিতে জানিয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।
ওই একই খবরে প্রকাশিত, বাবুল সুপ্রিয় এই আইনি নোটিশ সম্পর্কে নিজের প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, মন দিয়ে মানহানির মামলা লড়ব। আইনের ময়দানে আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তি এবং ব্যয়ের তথ্যও টেনে বের করব। ব্যানার্জিবাবুকে সে সবও জানাতে হবে। যদিও এই খবরের সত্যতা বা সূত্র সম্পর্কে ওই দৈনিকের খবরে কিছু লেখা নেই, প্রিয়বন্ধু বাংলার তরফেও এর সত্যতা যাচাই করে দেখা সম্ভব হয় নি। এই প্রবন্ধ সম্পূর্ণরূপে ওই দৈনিকে প্রকাশিত খবরের পরিপ্রেক্ষিতে করা, কোনোভাবেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় বা কোনো ব্যক্তি বা দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যে রচিত নয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!