এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অঙ্ক কষে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বুঝিয়ে দিলেন আগামী এক বছরের তৃণমূলের ১ কোটি ভোট বাড়ছে

অঙ্ক কষে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বুঝিয়ে দিলেন আগামী এক বছরের তৃণমূলের ১ কোটি ভোট বাড়ছে

গতকাল নজরুল মঞ্চে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের ডিজিটাল কনক্লেভ নিয়ে তুমুল আগ্রহ তৈরী হয়েছিল রাজনৈতিক মহলে। তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে এই কর্মসূচি নিয়ে এতটাই আগ্রহ তৈরী হয়েছিল যে – রেজিস্ট্রেশন তিনদিনের জায়গায় কমিয়ে দুদিন করে দেওয়া হয়। এমনকি, কনক্লেভে ঢুকতে গেলে তৃণমূলের টিকিটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শংসাপত্র নিয়ে আসা বাধ্যতামূলক করে দেওয়া হয়। এত কড়াকড়ির মধ্যেও দলীয় কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে উৎসাহের কোনো ভাতা পড়ে নি।

নিজে না আসতে পারলেও, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত কর্মীদের বার্তা দেন। এদিনের কর্মসূচিতে বার্তা রাখেন অন্যতম শীর্ষনেতা তথা সাংসদ সুব্রত বক্সী, কাকলি ঘোষ দস্তিদার প্রমুখ। তবে এদিনের কর্মসূচিতে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের মূল আকর্ষণ ছিল দলের যুবরাজ তথা তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কি বার্তা দেন সেইদিকে। হতাশ করেননি তিনি – আগামী এক বছরের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের ভোট আরো এক কোটি বাড়ানোর গোপন অঙ্ক শিখিয়ে দেন দলের ‘সাইবার-সৈনিকদের’।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন বলেন, বাংলায় মোট ২৯৪ টি বিধানসভা আছে। প্রতিটি বিধানসভায় ১০০ টি করে সক্রিয় ‘সাইবার-সৈনিক’ চাই। ২৯৪ টি বিধানসভায় ১০০ টি করে হলে মোট প্রায় ৩০ হাজার সাইবার-সৈনিক হবে। এই ৩০ হাজার সৈনিকের কাজ হবে সপ্তাহে মাত্র ২ জন করে মানুষকে দলে আনা। যে সমস্ত মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে অন্য দোলে যাচ্ছেন তাঁদের ফিরিয়ে আনা। সপ্তাহে দুজন করে মানুষকে আন্তে পারলেই মাসে ৮ জন এরকম মানুষ হবেন – আর সেই সংখ্যাটা আগামী এক বছরে মোট ৩০ লক্ষ হবে। তাঁদের পরিবারে যদি ৩ জন করে সদস্য থাকে তাহলে মোট ১ কোটি ভোটার হয়। তাহলে তৃণমূলের সাইবার-সৈনিকরা চাইলে দলের ভোট প্রায় ১২% বাড়াতে পারে।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় আরো বলেন, অন্য রাজ্যের কথা ভাবতে হবে না – এই রাজ্যে আপনারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ৪২ এ ৪২ দিন। তাহলেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ত্বে কেন্দ্রে ধর্মনিরপেক্ষ সরকার তৈরী হবে। আপনারা শুধু দিদির হাত শক্ত করুন – বাংলার হাত, ভারতের হাত দিদি শক্ত করবেন। অমিত শাহ্কেও তীব্র আক্রমন করে তৃণমূলের যুবরাজ বলেন, অমিত শাহ অনেক বড় বড় কথা বলে গেছেন – উনি যে ভাষায় কথা বলবেন, আমরাও সেই ভাষায় বলব। ইতিমধ্যেই, মামলা করেছি – যতদূর যেতে হয় যাব, মৃত্যুবরণ করতে রাজি আছি – কিন্তু, অপমান সহ্য করব না।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!