এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মানবিক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় – অসহায় কন্যাশ্রীকে সাফল্যের পরের ধাপে নিয়ে যেতে এগিয়ে দিলেন সাহায্যের বড় হাত

মানবিক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় – অসহায় কন্যাশ্রীকে সাফল্যের পরের ধাপে নিয়ে যেতে এগিয়ে দিলেন সাহায্যের বড় হাত


অর্থের অভাবে কোনো মেধা যাতে আর নষ্ট হয়ে না যায় সেই ব্যাপারে বারেবারেই দলের ছাত্র এবং যুব সংগঠনকে নজড় রাখার পরামর্শ দিয়েছিলেন খোদ দলনেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার মুখ্যমন্ত্রীর সেই পথকে অনুসরণ করে দুঃস্থ পড়ুয়ার পাশে দাঁড়ালেন যুব তৃনমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, নোয়াপাড়া শ্যামনগরের মেধা পড়ুয়া নিতু সাউয়ের অর্থের অভাবে পড়াশোনা প্রায় বন্ধ হয়ে যেতে বসেছিল। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, নোয়াপাড়ার এই মেধাবী মেয়েটি রাষ্ট্রগুরু সুরেন্দ্রনাথ কলেজে ভূগোল অনার্স নিয়ে ভর্তি হয়েছিল। কিন্তু অর্থের অভাবে মাঝরাস্তায় পড়াশুনো থমকে যায় তাঁর। আর সেই খবর পেয়ে যুব তৃনমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, এই মেধাবী মেয়েটির বাড়িতে পাঠিয়ে দেন তৃনমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি তৃণাঙ্কুর  ভট্টাচার্যকে।

জানা যায়, শনিবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি তৃণমূল ভট্টাচার্য বই, খাতা, ফুল এবং মিষ্টি নিয়ে তৃনমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের দূত হিসেবে সেই নিতু সাউয়ের বাড়িতে আসেন। যেখানে এই তৃনমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন জেলা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা অভিজিৎ দত্ত এবং সুব্রত দাস। আর সেখানে উপস্থিত হয়ে ভবিষ্যতে এই নিতু সাউ যতদূর পড়াশোনা করতে চায় তার সমস্ত খরচ তৃনমূল ছাত্র পরিষদ বহন করবে বলে জানিয়ে দিলেন রাজ্য তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভাপতি তৃণাঙ্কুর ভট্টাচার্য।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু এত ব্যস্ততার মাঝেও কিভাবে অর্থের অভাবে বন্ধ হয়ে যাওয়া সমাজের মেধা পড়ুয়াদের খবর রাখেন তৃনমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি? এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্য তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভাপতি তৃণমূল ভট্টাচার্য বলেন, “দাদা চূড়ান্ত ব্যস্ততার মাঝেও সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে চোখ বোলান। আমাদের সবার সাথে যোগাযোগ রাখেন। তাই কেউ বিপদে পড়লেই তিনি সেখানে ঝাঁপিয়ে পড়েন।”

একাংশ মতে, এর আগেও যখনই কোনো পড়ুয়া বা সমাজের মানুষ বিপদে পড়েছেন ঠিক তখনই ব্যক্তিগতভাবে তাঁর প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে নিজের মানবিক রুপ তুলে ধরেছেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এবারে অর্থের অভাবে অন্তরায় হয়ে যাওয়া নিতু সাউয়ের পড়াশুনোকে সক্রিয় করার জন্য তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতিকে পাঠিয়ে ফের নিজের মানবিক রুপই তুলে ধরলেন তৃনমূলের যুবরাজ।

এদিকে এদিন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষ থেকে সহযোগিতা পাওয়ায় খুশি মেধাবী নিতু সাউয়ের পরিবার। এই প্রসঙ্গে অসুস্থ নিতুর মা বলেন, “অভাবের সংসার ঠিকমত চলছিল না। তাই মেয়ের পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেছিল। কিন্তু এদিন অভিষেক আমাদের কাছে দেবদূতের মতো নেমে এলেন।”

এদিকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তৃনমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি তৃনাঙ্কুর ভট্টাচার্যের পক্ষ থেকে সহযোগিতা পাওয়ায় এবং ফের কলেজ দিতে পারায় প্রবল খুশি সেই মেধাবী নিতু সাউ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!