এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বেতন কমিশনের চেয়ারম্যানের পাশাপাশি এবার আরো গুরুত্ত্বপূর্ন দায়িত্ত্ব অভিরূপ সরকারকে

বেতন কমিশনের চেয়ারম্যানের পাশাপাশি এবার আরো গুরুত্ত্বপূর্ন দায়িত্ত্ব অভিরূপ সরকারকে

অম্লান বসুর জায়গায় এবার ওয়েস্ট বেঙ্গল ফিনান্স কর্পোরেশনের ( WBFC) এর নতুন চেয়ারম্যানের কুর্সিতে বসলেন অভিরূপ সরকার। ছোট-মাঝারি উদ্যোগপতিদের ঋণ দান করার উদ্দেশ্য নিয়ে ৫০ দশকে কেন্দ্রীয় সরকার আইন করে  WBFC র মতো ফিন্যান্স কর্পোরেশন গঠিত হয়েছিল। সেই সূত্রেই রাজ্যের একাধিক উদ্যোগপতিরা এই সংস্থা থেকে প্রয়োজনে ঋণ পেয়েছেন। কিন্তু বর্তমানে সংস্থার আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। সংস্থার মোট ঋণের ৩৬% নন পারফর্মিং অ্যাসেট (অনুৎপাদক সম্পদ)।  অর্থাৎ ৩৬% ঋণ গ্রহীতারা শোধই করেননি। এমনটাই জানা গিয়েছে। কাজেই এই সংস্থা ভবিষ্যৎ এখন বড়সড় প্রশ্নের মুখে।

নবান্নের এক শীর্ষ কর্তা এ প্রসঙ্গে জানান, ডব্লুবিএফসি-কে বন্ধ করে দেওয়া কিংবা এর সঙ্গে অন্য সংস্থাকে যোগ করে নতুন সংস্থা তৈরি করার একাধিক বিকল্প ভাবনা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে প্রশাসনিক আধিকারিকদের মধ্যে। এবং এ ব্যাপার নিয়ে সমীক্ষার জন্য একটি পেশাদার সংস্থাকেও দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যে। সংস্থার রিপোর্ট সামনে এলেই এই সিদ্ধান্তে শীলমোহর পড়বে।

এ প্রসঙ্গে সংস্থার নয়া চেয়ারম্যান অভিরূপ সরকার জানিয়েছেন, ফিনান্স সংস্থার যাত্রা শুরুর পর্ব আর এখনকার সময়ে কর্পোরেশনের আর্থিক অবস্থার বিস্তর ফারাক তৈরি হয়েছে। এখন ব্যাঙ্ক ঋণ দেওয়ার জন্য গ্রাহকের বাড়িতেও চলে আসছে। তাই সংস্থার কার্যপ্রণালীতে প্রয়োজনীয় সংশোধন নিয়ে আসা প্রয়োজন। এই লক্ষ্যেই বিশেষভাবে সক্রিয় হবেন তিনি। এছাড়া বকেয়া ৩৬% উদ্ধারেও বিশেষভাবে চেষ্টা করবেন তিনি। প্রয়োজনে নেবেন উপযুক্ত পদক্ষেপ। এমনটাই জানালেন এদিন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

উল্লেখ্য,বাজারে বন্ড বিক্রির মাধ্যমে রাজ্য সরকার কর্পোরেশনকে প্রতি বছর প্রচুর টাকা দেয়। ঋণের টাকা শোধ না হলে তা নিয়ে কোনো মাথাব্যাথা নেই বন্ড অধিকারীদের। কারণ তাদের টাকা শোধ করে দেওয়ার দায়িত্ব থাকে রাজ্য সরকারের। এখন সংস্থার আর্থিক অবস্থা থিতু করতে রাজ্যসরকার কী পদক্ষেপ নেয়,সেটাই দেখার। তবে রাজ্যসরকার কেন্দ্রের সম্মতি ছাড়া এ ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারবে না। এমনটাই জানা গেল নবান্ন কর্তাদের তরফ থেকে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!