এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > ত্রিপুরায় ক্ষমতায় এসেই চালু সপ্তম বেতন কমিশন, বাংলায় চাপ বাড়ছে তৃণমূল সরকারের

ত্রিপুরায় ক্ষমতায় এসেই চালু সপ্তম বেতন কমিশন, বাংলায় চাপ বাড়ছে তৃণমূল সরকারের

Priyo Bandhu Media


ত্রিপুরায় ২৫ বছরের বাম শাসনের মিথ ভাঙতে বিজেপির বড় হাতিয়ার ছিল ক্ষমতায় এলেই রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য সপ্তম বেতন কমিশন চালু করা। কথা রেখেছেন নতুন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব, কথা রেখেছে বিজেপি। নতুন মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকেই মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব ঘোষণা করেন একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করা হবে যা রাজ্য সরকারি কর্মীদের সপ্তম বেতন কমিশনের সুবিধা রূপায়নে কাজ করবে। আর এবার তা রূপায়ণের জন্য তিনি তিন সদস্যের এক কমিটি তৈরি করে আগামী ৯০ দিনের মধ্যে তাদের রিপোর্ট জমা দিতে নির্দেশ দিলেন। ফলে আশায় বুক বাঁধছেন ত্রিপুরার রাজ্য সরকারি কর্মীরা।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

অন্যদিকে, এরফলে প্রবল চাপ বাড়ল বাংলার তৃণমূল সরকারের উপর বলে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। একসময় কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের থেকে রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএর ফারাক প্রায় ৫৪% এ পৌঁছে গিয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী জানুয়ারী থেকে আরো ১৫% ডিএ দেওয়ায় তা কমে ৩৯% এ পৌঁছায়, কিন্তু এরমাঝে কেন্দ্র সরকার আবার ডিএ দেওয়ায়, সেই পার্থক্য আবার প্রায় ৪৫%-এ পৌঁছে গেছে। অন্যদিকে বিভিন্ন সরকারি কর্মচারী সংগঠন সমানে বকেয়া ডিএ ও অবিলম্বে ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশের দাবি ক্রমাগত জানিয়ে যাচ্ছে। এর মাঝেই বিজেপি রাজ্য সভাপতি ঘোষণা করে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ক্ষমতায় এলে অবিলম্বে বকেয়া ডিএ ও রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের অন্যান্য দাবি তাঁরা মেনে নেবেন। ফলে রাজা সরকারি কর্মচারীদের একটা বৃহৎ অংশ ও তাঁদের পরিবার-আত্মীয় স্বজন এতে প্রভাবিত হতে পারেন বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা। আর তাই ত্রিপুরায় উন্নয়ন দেখিয়ে বঙ্গ জয়ের চেষ্টা যে বিজেপি নেতারা করবেন সেই ধারণা আরো বদ্ধমূল হচ্ছে তাঁদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!