এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রাজ্যের 42 টি লোকসভা কেন্দ্রেরই সাধারণ মানুষের অভাব-অভিযোগ সরাসরি শুনতে প্রধানমন্ত্রীর অভিনব উদ্যোগ

রাজ্যের 42 টি লোকসভা কেন্দ্রেরই সাধারণ মানুষের অভাব-অভিযোগ সরাসরি শুনতে প্রধানমন্ত্রীর অভিনব উদ্যোগ

এবারের লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের 42 টি লোকসভা আসনের মধ্যে 22 থেকে 23 টি আসন নিজেদের দখলে রাখবার জন্য রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বকে তাঁর টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। এমনকি এই ব্যাপারে বিভিন্ন সময়ে রাজ্যে এসে দলীয় সংগঠনকে চাঙ্গা করার জন্য অমিত শাহ থেকে নরেন্দ্র মোদী, যোগী আদিত্যনাথ থেকে বিজেপি শাসিত রাজ্যের হেভিওয়েট মুখ্যমন্ত্রীদের এনে শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে জোর প্রচার করেছে গেরুয়া শিবির।

কিন্তু আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলায় পদ্ম ফোটাতে এবার অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করছে বিজেপি। সূত্রের খবর, সাধারণ মানুষের কাছে আরও বেশি করে পৌঁছে যেতে এবার রাজ্যের 42 টি লোকসভা কেন্দ্র ও বিজেপির রাজ্য সদর দপ্তরে একটি বিশেষ “কমপ্লেইন বক্স” রাখবার জন্য উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

এছাড়াও রাজ্যের প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির পক্ষ থেকে একটি বিশেষ মোবাইল ভ্যানেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু কি এই মোবাইল ভ্যান? জানা গেছে, বিশেষ এই মোবাইল ভ্যানে একটি জায়ান্ট স্কিনে বিগত সাড়ে চার বছরে কেন্দ্রের মোদি সরকারের পক্ষ থেকে যে সমস্ত উন্নয়নমূলক প্রকল্প চালু করা হয়েছে তার বিস্তারিত তথ্য দেওয়ার পাশাপাশি সেখানে একটি কমপ্লেইন বক্সও রাখা থাকবে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আর এই বক্সের মাধ্যমে সাধারণ মানুষ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে সরাসরি তাঁদের অভিযোগ জানাতে পারবেন। এছাড়াও এই মোবাইল ভ্যান থেকেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ভয়েস কল করারও সুবিধে থাকবে বলে জানা গেছে। এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “রাজ্যের 42 টি লোকসভা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন বের করবার জন্য প্রয়োজনীয় সব রকম ব্যবস্থার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। মূলত সাধারণ মানুষের অভাব- অভিযোগ বিশদে জানবার জন্যই দলের তরফে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলায় দলীয় সংগঠনকে চাঙ্গা করে এই বাংলা থেকে বিপুলসংখ্যক আসুন নিজেদের ঝুলিতে পুরতে চায় বিজেপি। আর তাই তো এবার রাজ্যের প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্রে সাধারণ মানুষের আরও বেশি করে পৌঁছে যেতে মোবাইল ভ্যান চালু করার মাধ্যমে এক অভিনব উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্যের গেরুয়া শিবিরের নেতারা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!