এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > চারবারের সাংসদ শীর্ষ বামনেতার সঙ্গে গেরুয়া শিবিরের হেভিওয়েট নেতার বৈঠক ঘিরে বড়সড় জল্পনা

চারবারের সাংসদ শীর্ষ বামনেতার সঙ্গে গেরুয়া শিবিরের হেভিওয়েট নেতার বৈঠক ঘিরে বড়সড় জল্পনা

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া এক্সক্লুসিভ – লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় তৃণমূলের ৪২ এ ৪২ বা তৃণমূল নেত্রীর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্নকে ধুলোয় মিশিয়ে, কার্যত ঝড় তুলে দিয়েছে গেরুয়া শিবির। লোকসভার দীর্ঘদিন আগে থেকেই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ যে ২৩ আসনের দাবি করছিলেন, তাকে প্রায় সত্যি করে দিয়ে ১৮ টি আসন জিতে নেয় বিজেপি। আর তারপর, গেরুয়া শিবিরের পরবর্তী লক্ষ্য স্থির হয়ে গেছে নবান্নের আকাশেও গেরুয়া পতাকা ওড়ানো।

যদিও, তৃণমূল শিবিরের দাবি স্থানীয় কিছু নেতাদের বিরুদ্ধে ক্ষোভের প্রতিফলনে এবং বাম ভোটের রামশিবিরে গমনে, বাংলায় কিছু আসনে অঘটন ঘটেছে। কিন্তু এর প্রভাব বিধানসভা নির্বাচনে নাকি পড়বেই না, সেখানে তৃণমূল আবার স্বমহিমায় জিতবে! এই প্রসঙ্গে তৃণমূল নেত্রী, আরও একধাপ এগিয়ে দাবি করেছেন, বিজেপি নাকি ইভিএমে ‘প্রোগ্রামিং’ করে বাংলায় এই ফল করেছে!

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কিন্তু, ঘাসফুল শিবির যে দাবিই করুক না কেন বাস্তব চিত্র যে অন্য ইঙ্গিত দিয়ে যাচ্ছে প্রত্যহ। লোকসভার ফলাফল ঘোষণা হতেই, তৃণমূল ছেড়ে তো বটেই, সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেস ছেড়ে বা নীতিগত দিক থেকে সম্পূর্ণ বিপরীত মেরুর বামফ্রন্ট ছেড়েও, গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানোর স্রোত দিন দিন তীব্র হচ্ছে। যদিও, গেরুয়া শিবিরের দাবি – এখন নাকি ট্রেলর চলছে, আসল কাহিনী এখনও শুরুই হয় নি! রাজ্য-রাজনীতির যেসব হেভিওয়েট গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে আলোচনায় আছেন, সেইসব নাম শুনলে চমকে যেতে হবে!

আর, রাজ্য-রাজনীতির পট-পরিবর্তনের আবহে, এবার সামনে এল এক বড় খবর। চার-চারবারের সাংসদ তথা শীর্ষ বামনেতা ও ফরোয়ার্ড ব্লকের রাজ্যসভার সাংসদ দেবব্রত বিশ্বাসের সঙ্গে সম্প্রতি গেরুয়া শিবিরের হেভিওয়েট নেতা তথা ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি রিসার্চ ফাউন্ডেশনের ডিরেক্টর ডঃ অনির্বান গাঙ্গুলির এক বৈঠক হয়। সবথেকে বড়কথা ঘন্টা দেড়েক চলা সেই বৈঠকের শেষে, অনির্বানবাবু উপহার হিসাবে দেবব্রতবাবুর হাতে তুলে দেন নিজের লেখা একটি বই। আর সেই বইয়ের নামেই রয়েছে মহাচমক!

বর্ষীয়ান বামফ্রন্ট নেতা ও রাজ্যসভার চারবারের সাংসদ দেবব্রত বিশ্বাসের হাতে অমিত শাহকে নিয়ে নিজের লেখা বই তুলে দিচ্ছেন ডঃ অনির্বান গাঙ্গুলি।

বামফন্টের শীর্ষনেতা তথা বর্ষীয়ান সাংসদের হাতে তুলে দেওয়া অনির্বানবাবুর বইটির নাম – অমিত শাহ অ্যান্ড দ্যা মার্চ অফ বিজেপি। আর এই বৈঠকের খবর সামনে আসতেই, রাজধানীর রাজপথে শুরু হয়ে গেছে তুমুল জল্পনা। তাহলে কি এবার দেবব্রতবাবু বাম শিবির ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে চলেছেন? নাকি দেবব্রতবাবুর দল ফরোয়ার্ড ব্লকই এবার বামফ্রন্ট ছাড়তে চলেছে? এই নিয়ে, দেবব্রতবাবুর সঙ্গে যোগাযোগ করা যায় নি, ফলে তাঁর কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি।

অন্যদিকে, অনির্বানবাবুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, তিনি ঘন্টা দেড়েক দীর্ঘ বৈঠককে ‘নেহাতই সৌজন্য বৈঠক’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। কিন্তু, অনির্বান বাবু সৌজন্য সাক্ষাৎ বলে এড়িয়ে যেতে চাইলেও, তা মানতে নারাজ রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। ১৯৯০ সাল থেকে টানা ২৪ বছর রাজ্যসভার সাংসদ থাকা, ১৯৯৭ সালে পার্টির সাধারণ সম্পাদক পদে বসা, সুবক্তা দেবব্রতবাবু এবং অনির্বানবাবুর মত অতি ব্যস্ত মানুষ দেড়ঘন্টা ধরে সৌজন্য বিনিময় করছেন এবং বৈঠক শেষে অমিত শাহকে নিয়ে বই উপহার দিচ্ছেন, মানতে নারাজ রাজনৈতিক মহল। এই বৈঠক নতুন কোন সমীকরণের দিকে এগিয়ে যায় সেদিকেই আপাতত চোখ রাখতে চলেছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!