এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > 370 এর পরিণতি নিয়ে কোন মানসিক ভাবনায় ছিলেন, স্পষ্ট করলেন অমিত শাহ

370 এর পরিণতি নিয়ে কোন মানসিক ভাবনায় ছিলেন, স্পষ্ট করলেন অমিত শাহ


সম্প্রতি দ্বিতীয়বারের জন্য বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদি নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পরই তাদের প্রতিশ্রুতি একের পর এক পালন করতে শুরু করেছে। প্রথমে তিন তালাকের পর কাশ্মীরের 370 ধারার অবলুপ্তি ঘটিয়ে মাস্টারস্ট্রোক দিয়েছে সকলকে।

সম্প্রতি রাজ্যসভার পর লোকসভায় এই 370 ধারার বিলোপ ঘটিয়ে জম্মু-কাশ্মীর পুনর্গঠন বিল পাস করেছে কেন্দ্র। যেখানে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। তবে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে এই বিল পাসের পর দেশবাসীর মনে খুশির হাওয়া বইলেও এর বিরোধিতায় সরব হতে দেখা গেছে কংগ্রেস, সিপিএমের মত বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে।

তবে কংগ্রেসের তরফে এর বিরোধিতা করা হলেও কংগ্রেসের জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, দীপেন্দ্র হুডার মত নেতারা এই ব্যাপারে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন। যা নিয়ে কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে পড়েছে হাত শিবির। কিন্তু 370 ধারা প্রত্যাহারের মতো সাহসী সিদ্ধান্ত নিতে কি তার কোনো অসুবিধে হয়নি! যখন এই প্রশ্নই ভারতবর্ষের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ঘিরে তৈরি হচ্ছে, ঠিক তখনই এই ব্যাপারে মুখ খুলতে দেখা গেল সেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, রবিবার চেন্নাইয়ে উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডুর একটি বইপ্রকাশ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আর সেখানেই এই 370 ধারা বিলোপ নিয়ে মুখ খুলতে দেখা যায় তাকে। যেখানে তিনি বলেন, “370 ধারা অনুচ্ছেদ অনেক আগেই প্রত্যাহার করা উচিত ছিল বলে মনে করি। কিন্তু অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের পর কি হবে, তা নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে আমার কোনো সংশয় ছিল না। নিশ্চিতভাবেই সন্ত্রাসবাদের অবসান হবে, আর উন্নয়ন শুরু হবে।”

কিন্তু প্রথমে রাজ্যসভায় এই বিলটি পাস করানো নিয়ে কি তিনি কিছুটা চিন্তিত ছিলেন! কারণ রাজ্যসভায় তো তাদের অতটা সমর্থন ছিল না! এই প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, “রাজ্যসভায় কিভাবে বিলটা পাস করাব, সেটা নিয়ে একটা ভাবনা ছিল। কারণ আমাদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই। তাও রাজ্যসভায় আগে নিয়ে পেশ করলাম।

অন্ধ্রপ্রদেশে বিভাজনের সময় যে দৃশ্য সংসদ দেখেছে, এমন অভিজ্ঞতা আমার ক্ষেত্রে হয়নি। বিরোধীদের কথাও শোনা হয়েছে। সংসদের গরিমা অক্ষুন্ন থেকেছে। ভেঙ্কাইয়াজী যেভাবে অধিবেশন চালিয়েছেন, তার দক্ষতাকে কুর্নিশ করছি।” সব মিলিয়ে 370 ধারা বিলোপ নিয়ে মুখ খুললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!