এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > গুলিবিদ্ধ ৩ মহিলা তৃণমূল সমর্থক – সামনে এল বিস্ফোরক অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগ

গুলিবিদ্ধ ৩ মহিলা তৃণমূল সমর্থক – সামনে এল বিস্ফোরক অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগ

দলীয় কর্মীরা ২১ শে জুলাইয়ের সভায় যোগ দিতে কলকাতায় আর তাই সেই ফাঁকে কংগ্রেসে যোগ দিতে চাপ দেওয়া হল তৃণমূল পরিবারকে বলে অভিযোগ সামনে এল। আর তৃণমূল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিতে না চাওয়ায় এক কিশোরী সহ তিন মহিলা তৃণমূল সমর্থক গুলিবিদ্ধ হলেন কংগ্রেসের হাতে বলে দলীয়স্তরে অভিযোগ আনল তৃণমূল কংগ্রেস। ঘটনাটি উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়ায়।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ত্বের অভিযোগ, চোপড়া ব্লকের লক্ষ্মীপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কসাইপাড়া দীর্ঘদিন ধরেই কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি। কিন্তু সেখানকার মানুষ ধীরে ধীরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে আস্থা রেখে শাসকদলে যোগ দিতেই, মরিয়া হয়ে কংগ্রেস পুনরায় তৃণমূল থেকে কংগ্রেসে ফিরে যাবার জন্য চাপ দিতে থাকে। শহীদ দিবসের কর্মসূচিতে যোগ দিতে দলের বেশিরভাগ কর্মীই কলকাতায় যাওয়ায় এই সময়টাকেই বেছে নিয়ে কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তৃণমূল সমর্থক পরিবারগুলির বাড়িতে বোমা-গুলি নিয়ে আক্রমন করে।

অন্যদিকে, কংগ্রেসের তরফে সম্পূর্ণ ঘটনা উড়িয়ে দিয়ে জানানো হয়েছে, এই ঘটনায় দলের কেউ জড়িত নেই, কংগ্রেসের নামে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। বাড়িতে গুলি চালানোর অনুশীলন করা হচ্ছিল – সেসময়েই ঘটনাটি ঘটেছে। উল্টে তৃণমূলের সঙ্গে সংঘর্ষে আমাদের দলের চারজন জখম হয়েছেন।

সমগ্র ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পুরো এলাকা থমথমে হয়ে রয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রের খবর। এমনকি শুরু হয়েছে পুলিশি টহলও, ঘটনায় এখনো পর্যন্ত দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আহতদের সকলকেই স্থানীয় প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে, তাঁদের অবস্থা স্থিতিশীল বলেই জানা গেছে। তবে স্থানীয় সূত্রের খবর, পঞ্চায়েতের নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হতেই শাসক-বিরোধীদের পারস্পরিক বিবাদে থমথমে হয়ে রয়েছে এলাকা, উভয় পক্ষই লাঠি ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে একে অপরকে আক্রমন করছে – যদিও পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!