এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ২০১৯ কে সামনে রেখে বিজেপিকে সাঁড়াশি চাপে রাখলেন রাহুল

২০১৯ কে সামনে রেখে বিজেপিকে সাঁড়াশি চাপে রাখলেন রাহুল

লক্ষ্য ২০১৯ বিজেপিকে পরাস্ত করতে কোনো সুযোগই আর ছাড়ছেন না কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। আর তাই কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহণমন্ত্রী নীতীন গড়কড়ির বিস্ফোরক মন্তব্যকে অস্ত্র করে যুদ্ধক্ষেত্রে অবতীর্ণ হলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। প্রসঙ্গত মাত্র কয়েক ঘন্টা আগেই বিজেপি দলের শীর্ষ নেতা তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মহারাষ্ট্রে সাম্প্রতিক কালের সংরক্ষণ আন্দোলনে বিষয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেছিলেন সংরক্ষণ করলেই সমস্ত সমস্যার সমাধান হবেনা কারণ দেশের সরকারী ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হচ্ছে কোথায় বরং দিন দিন কর্মক্ষেত্র সংকুচিত হচ্ছে।

তাই সংরক্ষণ হলেই যে অনুন্নত জনজাতির মানুষজনএর জীবনে সুদিন ফরবে এমন ভাবার কোনো কারণ নেই। গেরুয়া শিবিরের প্রথম সারির নেতার এই মন্তব্যকে অস্ত্র করে এদিন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী সোস্যাল মিডিয়ায় ট্যুইট লিখলেন। কেন্দ্র সরকারকে টিপ্পনী কেটেই রাহুল গান্ধী লিখলেন , ” দারুণ প্রশ্ন করেছেন নীতীন গড়কড়ি। প্রত্যেক ভারতীয় এই একই প্রশ্ন করছেন।”

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

উল্লেখ্য গত মাসেই কংগ্রেস সভাপতি লোকসভায় আনা অনাস্থা প্রস্তাবের সমর্থনে দেওয়া ভাষণেও কর্মসংস্থানের অভাব নিয়ে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক সওয়াল করেছিলেন। জানিয়েছিলেন দেশের বেকার সমস্যা সমাধানে এবং যুবদের জন্য বিকল্প কর্মসংস্থান ব্যবস্থা করতে কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যর্থতার কথা। চীনের সাথে ভারতের তুলনামূলক আলোচনা করে কংগ্রেস সভাপতি পরিসংখ্যান দিয়েই জানিয়েছিলেন চীন যেখানে প্রতি ২৪ ঘণ্টায় ৫০ হাজার যুবককে কর্মে নিযুক্ত করে। সেখানে ভারতের বর্তমান সরকার ৪০০ জন যুবককে চাকরি দিতে পারে।

অন্যদিকে রাজনৈতিক মহলে এই নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। এখানে রাহুল গান্ধীকেই তারা এগিয়ে রাখতে চাইছেন। কেননা তাদের মতে রাজনীতিতে ধীরে ধীরে বেশ পরিপক্ক হয়ে উঠেছেন রাহুল গান্ধী। সামান্য থেকে বড় কোনো কিছুতেই বিজেপিকে ছাড়ছেন না। এখন গোটা ভারতবর্ষে জ্বলন্ত ইস্যু হলো বেকারত্ব। বেকারত্ব জ্বালায় গোটা দেশের যুবক সম্প্রদায়। আর সেখানে চাকরি দিতে পারছি না এটা সরকারের পক্ষে এক প্রকার অপাৰদৰ্শিতাই একপ্রকার প্রমান করছে। তাই আর সেটাকে এনে রাহুল গান্ধী বিজেপির দুর্বলতাগুলো প্রকাশ এনে দিয়ে বিপুল সংখ্যাক ভোট নিজের ঝুলিতে পড়ার চাল দিয়ে দিলেন বলেই মত রাজনৈতিকমহলের। এখন দেখার যে বিজেপি এর পর কি ভাবে ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!