এখন পড়ছেন
হোম > 2019 > September

কর্মচারীদের পিএফ সুরক্ষিত দু-দুটি বড়সড় পদক্ষেপ কেন্দ্র সরকারের – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যজুড়ে একদিকে যেমন সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি থেকে শুরু করে প্রভিডেন্ট ফান্ড, এরিয়ার থেকে শুরু করে মহার্ঘ ভাতা প্রসঙ্গে জর্জরিত রাজ্যের অর্থ দপ্তর, ঠিক সেই সময়ই কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মীদের বেতন সংক্রান্ত আইনকে কেন্দ্র করে রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়তে দেখা যেতে পারে রাজ্য সরকারকে। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রক আগামী লোকসভার অধিবেশনে পিএফ সদস্যদের জন্য

বাদ পড়তে চলেছেন দুই হেভিওয়েট নেতা? তৃণমূলের অন্দরমহলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে জল্পনা চরমে

লোকসভা নির্বাচনে ভরাডুবির পরই বিভিন্ন জেলার দলীয় সংগঠনে বদল আনেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার মধ্যে ছিল কোচবিহার জেলা। সভাপতি থেকে রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে সরিয়ে সেখানে দায়িত্ব দেওয়া হয় বিনয়কৃষ্ণ বর্মনকে। পাশাপাশি কার্যকরী সভাপতি করা হয় রবীন্দ্রনাথ ঘোষেরই চরম বিরোধী বলে পরিচিত পার্থপ্রতিম রায়কে। এদিকে জেলায় নতুন কমিটি গঠন হওয়ার

এবার সঙ্ঘ ও বিজেপিকে ‘ধর্মের পাঠ’ দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়!

ধর্মকে কেন্দ্র করে বরাবরই বিজেপি আরএসএস তাদের রাজনীতি করেছে বলে বারেবারেই বিরোধীদের তরফে অভিযোগ উঠেছে। হিন্দু ধর্মকে পাথেয় করেই এই দুই সংগঠন ও দল এগিয়ে চলেছে বলেও দাবি উঠেছে। হিন্দুত্বের প্রচার করেই বিজেপি সারাদেশে লোকসভা ভোটে জয়লাভ করেছে। সারা দেশে যে হিন্দুত্বের দাবি উঠছে, তা কিন্তু প্রমাণ হয়ে গেল 2019

আদি-নব্য লড়াইকে গঙ্গায় ভাসিয়ে এক ছাতার তলায় সবপক্ষকে আনার প্রক্রিয়া শুরু করে দিলেন নাড্ডা

লোকসভা নির্বাচনের পর বিজেপি যখন বাংলায় অনেকটা সাফল্য পেয়েছে, ঠিক তখনই পুরনো বনাম নব্য বিজেপি কর্মীদের মধ্যে দ্বন্দ্ব লক্ষ্য করা গেছে। বিভিন্ন জায়গায় তৃণমূলের অনেক হেভিওয়েট নেতারা পদ্ম শিবিরে নাম লিখিয়েছেন। যার ফলে সেই সমস্ত জায়গায় পুরনো বিজেপি কর্মীরা অভিযোগ করেছেন যে, দুদিন হল যে সমস্ত তৃণমূলের নেতারা দলে যোগ

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে উন্নয়ন করছেন, আপনারা তার পাশে থাকুন এই প্রার্থনা করি: শুভেন্দু

পূর্ব মেদিনীপুরে অধিকারী পরিবারের রাজ চললেও মেদিনীপুর লোকসভা আসন রক্ষা করতে পারেনি রাজ্যের শাসক দল। বস্তুত, এই আসন তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে প্রেস্টিজ ফাইট ছিল। যেখানে বর্তমানে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ সাংসদ নির্বাচিত হয়ে লোকসভায় প্রতিনিধিত্ব করছেন। দিলীপবাবুকে হারাতে পারলে তৃণমূলের কাছে একটি বড় রাজনৈতিক জয় হত, এই বিষয়ে কোনো

জঙ্গলমহল ফিরে পেতে তৃণমূলের “প্ল্যান ফাঁস” করে বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ

পশ্চিম মেদিনীপুর এলাকায় ঘাসফুল শিবিরকে লোকসভা নির্বাচনে পর্যুদস্ত করে এলাকার দখল নিয়েছে গেরুয়া শিবির। এলাকায় অস্তিত্ব সংকট এসে উপস্থিত হয়েছে ঘাসফুল শিবিরের পক্ষে। যদিও নিজেদের পালে হাওয়া টানতে মরিয়া তৃণমূল কংগ্রেস এবং তার শীর্ষ নেতৃত্ব। মিছিল, মিটিং থেকে শুরু করে সভা-সমিতির মধ্যে দিয়ে এলাকায় নিজেদের জমি ফিরিয়ে পেতে নানানভাবে উদ্যোগ গ্রহণ

অমিত শাহ আসার আগেই বড় ধাক্কা খেলো বঙ্গ বিজেপি, তৃণমূলে ফিরলো ঘরের ছেলেরা

লোকসভা ভোটের পরেই তৃণমূলকে নিয়ে রাজ্যে "গেলো গেলো"রব উঠেছিল। রাজ্যে ১৮ টি আসন পাওয়ার পরে বিজেপির যে ঝড় উঠেছিল তাতে নড়বড়ে হয়ে গিয়েছিলো তৃণমূলের অন্দর। লোকসভা ভোটের পর ঝড়ের গতিতে তৃণমূলের ঘর ভাঙতে শুরু করেছিল বিজেপি। যদিও সে ঝড় এখনো অব্যাহত। তবুও ঝড়ের দাপট কিছুটা হলেও কমেছে। ঘরে ফিরছেন ঘরের

এবার কি এই হেভিওয়েট নেতাও বিজেপি ছেড়ে ফিরছেন তৃণমূলে, মন্তব্য নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে

এবার অবশেষে পদত্যাগ করলেন গারুলিয়া পৌরসভার চেয়ারম্যান তথা বিজেপি নেতা সুনীল সিংহ। বস্তুত, গত জুন মাসেই দিল্লিতে গিয়ে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে নাম লেখান এই সুনীল সিংহ। যেখানে তার সঙ্গে ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত মুখোপাধ্যায় ছাড়াও বেশ কয়েকজন তৃণমূল কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দেন। কিন্তু কিছুদিন আগেই সুনীল সিংহ বিজেপিতে থেকে গেলেও এই

বিজেপিকে বড়সড় ধাক্কা দিয়ে পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে জল্পনা বাড়ালেন হেভিওয়েট বিধায়ক,শোরগোল রাজ্যে

বিজেপিকে বড়সড় ধাক্কা দিয়ে এবার গারুলিয়া পুরসভার চেয়ারম্যান সুনীল সিং চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করলেন। কয়েকদিন আগেই তার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়েছিল তৃণমূলের তরফ থেকে। আর আজ তিনি নিজেই পদত্যাগপত্র তুলে দেন পুরসভার একজিকিউটিভ অফিসারকে। যা ঘিরে ব্যাপক শোরগোল শুরু রাজ্যে। গাড়ুলিয়ার চেয়ারম্যান সুনীল সিং কয়েকমাস আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন।

বিজেপির সমীক্ষাই বলছে এখনও মুখ্যমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা ৭০%, বিধানসভার আগে বাড়ছে প্রবল চাপ!

সামনেই দেশের বিভিন্ন রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন হতে চলেছে। লোকসভা ভোটে দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রীর পদ দখল করার সাথে সাথেই বিজেপি সারাদেশে এবার বিধানসভাগুলি দখল করার উদ্দেশ্যে তাঁদের সংগঠন বাড়িয়ে চলেছে। ইতিমধ্যে মহারাষ্ট্র, হরিয়ানা, ঝাড়খন্ডে নির্বাচনের নির্ঘণ্ট স্থির হয়ে গেছে। এরপর দিল্লিতেও বিধানসভা নির্বাচন। কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনের আগেই দিল্লির বিজেপি শিবিরে রীতিমত চিন্তার

Top
error: Content is protected !!