এখন পড়ছেন
হোম > 2019 > August

দলীয় সাংসদের গাড়ি আটকে বিক্ষোভ দেখালেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের একাংশ, জেনে নিন

সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় বিজেপি আঠারোটা আসন দখল করেছে। আর দলের এই সাফল্যে কার্যত উজ্জীবিত হতে দেখা গেছে গেরুয়া শিবিরকে। তবে তাদের মূল টার্গেট 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন। আর তাই সেই নির্বাচনের আগে যখন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে চাপে ফেলার ঘুটি সাজাচ্ছে বিজেপি, ঠিক তখনই দলের সাংসদকে পেয়ে

আমাদের খবরকে মান্যতা দিয়ে পে-কমিশন নিয়ে বড় ঘোষণা শুভেন্দু অধিকারীর

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া এক্সক্লুসিভ - রাজ্যের লক্ষ লক্ষ সরকারি কর্মচারী ও শিক্ষক চাতক পাখির মত যে খবরটির দিকে বিগত প্রায় চার বছর ধরে বসে আছেন - তা হল, কবে রাজ্য সরকার ঘোষণা করবে ষষ্ঠ পে কমিশন। সম্প্রতি, এই প্রসঙ্গে বিভিন্ন খবর বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত হয় - যা নিয়ে আমাদের বহু

চাকরি দেওয়ার নাম করে তোলাবাজির অভিযোগে এবার ধ্বস্ত গেরুয়া শিবির – জেনে নিন বিস্তারিত

তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধেই এতদিন কাটমানির অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু এবার রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল হয়ে ওঠা বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে উঠল চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকা তোলার অভিযোগ। সূত্রের খবর, বুধবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুরের নয়াবাজারের বাসিন্দা বিজেপি সমর্থক বলে পরিচিত দিলীপ বর্মন গঙ্গারামপুর থানায় বিজেপির গঙ্গারামপুর ব্লক সভাপতি সনাতন কর্মকারের

মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণায় ক্ষোভ বাড়লো, বৃহত্তর আন্দোলনের পথে কর্মচারী সংগঠন-জেনে নিন বিস্তারিত

ফের একবার রাজ্য সরকারি কর্মীদের ক্ষোভ বাড়ালেন তৃণমূল নেত্রী। জানা যাচ্ছে এদিন নেতাজী ইনডোর স্টেডিয়াম থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা করেন পূজা কমিটি গুলিকে বিদ্যুতের জন্য 25% ছাড় দেওয়া হবে এবং সাথে পুজোর অনুদান বাড়িয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন আর্থিক অবস্থা খারাপ তবুও আমরা গতবার 10 হাজার টাকা দিয়েছিলাম কিন্তু অনেক কষ্টের মধ্যে

দিলীপ ঘোষের উপর আক্রমণের প্রতিবাদে রাজু-শঙ্কুর নেতৃত্বে উত্তাল কলকাতার রাজপথ

লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় কার্যত ধরাশায়ী হওয়ার পর আর দেরি না করে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস নির্বাচন বিশেষজ্ঞ প্রশান্ত কিশোরকে দলের পরবর্তী রাজনৈতিক কর্মসূচি ঠিক করার দায়িত্ব দেয়ার দায়িত্ব দেয়। আর দায়িত্ব নিয়েই প্রশান্ত কিশোর নিজের মতো একের পর এক কর্মসূচি তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের জন্য নিয়ে আসেন। এর মধ্যে অন্যতম হলো

বিজেপি বৈশাখী ‘মধুচন্দ্রিমা’ কি শেষ ক্রমশ তীব্রতর হচ্ছে জল্পনা

সম্প্রতি তৃণমূল বিধায়ক শোভন চট্টোপাধ্যায় হাত ধরে বিজেপিতে প্রবেশ করেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। শোভন চট্টোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক দুঃসময়ে সর্বক্ষণ পাশে ছিলেন তিনি বন্ধু হয়ে। এমনকি স্বামী মনোজিৎ মণ্ডল তৃণমূল কংগ্রেসে থাকা সত্বেও তিনি শোভন চট্টোপাধ্যায়ের হাত ধরে বিজেপিতে চলে আসেন।কিন্তু বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপিতে আগমনের একমাসও সম্পন্ন হয়নি, এরমধ্যেই বিজেপির অন্দরে বৈশাখী বন্দোপাধ্যায়

বিতর্কিত নেত্রীকে ‘থামাতে’ এবার বড়সড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে গেরুয়া শিবির – জানুন বিস্তারিত

লোকসভা ভোটের আগে থেকেই বিজেপি নেত্রী তথা বর্তমানের ভোপালের সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা বিভিন্ন সময় বিতর্কিত মন্তব্য করে সংবাদ শিরোনামে এসেছেন। সে নাথুরাম গডসে থেকে হেমন্ত কারবারে কিংবা অভিশাপ থেকে বিজেপির নেতা-নেত্রীদের মৃত্যু সবকিছুই মধ্যপ্রদেশের ভূপালের বিজেপির সাংসদের বিতর্কিত মন্তব্য তাকে রাজনৈতিক চর্চাতে রেখেছে। কিন্তু তার এই মন্তব্যের জেরে বারবার অস্বস্তিতে পড়তে

অবশেষে সাজা ঘোষণা খাগড়াগড় কাণ্ডের ১৯ দোষীর – একনজরে দেখে নিন কে কি শাস্তি পেলেন

অবশেষে রাজ্যের অন্যতম হাই-প্রোফাইল মামলা খাগড়াগড়-কাণ্ডের সাজা ঘোষণা হল কলকাতার নগর ও দায়রা আদালতে। বিচারপতি সিদ্ধার্থ কাঞ্জিলাল আজ ঘোষণা করেন। আগেই অভিযুক্ত ১৯ জন নিজেদের দশ স্বীকার করে নিয়েছিলেন, কিন্তু যেহেতু তাদের সন্তান-সন্ততি রয়েছে, তাই আদালতের কাছে সর্বনিম্ন সাজা দেওয়ার আবেদন জানিয়েছিলেন তারা। যদিও, তদন্তকারী সংস্থার পক্ষ থেকে সকলের সর্বোচ্চ

বাংলা যে গেরুয়া উত্থানে রীতিমত ঝড় তুলেছে – তথ্য দিয়ে জানিয়ে দিল বিজেপি শিবির

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি তার ভিত গড়তে শুরু করেছিল এবং তাতে যে তারা রীতিমতো সফল তা বোঝা গেল ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের রেজাল্ট বেরোনোর পর। লোকসভা ভোটে অভূতপূর্ব ফলই বলে দিচ্ছে বাংলার রুক্ষ জমিতে পদ্মের চাষ বেশ ভালোভাবেই হচ্ছে। থেকে বাংলায় বিজেপির উত্থান শুরু। আর এবার,

মিথ্যা মামলা, দেবশ্রী থেকে শোভন- সব বিষয়েই অকপট হয়ে মুখ খুললেন মুকুল রায়

কেউ বলেন 'চাণক্য', কেউ বলেন 'গদ্দার' - মুকুল রায় এখন এভাবেই পরিচয় পাচ্ছেন বঙ্গ-রাজনীতিতে। নিন্দুকদের মতে সারদা, নারদা থেকে বাঁচার জন্যই মুকুল রায় একসময় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু নারদা মামলা এখনো মুকুল রায়ের পিছু ছাড়েনি। সিবিআই এর সামনে এখনো প্রায়ই হাজিরা চলছে তাঁর। বৃহস্পতিবার দিল্লি সিবিআই দপ্তর থেকে

Top
error: Content is protected !!