এখন পড়ছেন
হোম > 2019 > April

ভোট মিটলেই গ্রেপ্তার হবেন মুকুল রায়? জল্পনা বাড়ালেন খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়!

দেশের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম চার পর্ব হয়ে গেছে - বাকি আর তিন পর্ব। কিন্তু বাকি এই তিন পর্বেই রাজ্যের একাধিক হেভিওয়েট ও মেগাস্টার কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বাকি। ফলে, রাজ্যজুড়ে প্রচারে ঝড় তুলছে প্রবল যুযুধান দুই প্রতিপক্ষ তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি। বিজেপির হয়ে প্রচারের মূল 'ব্যাটন' যেমন নরেন্দ্র মোদির হাতে, তৃণমূলের

জমজমাট মনোনয়ন পর্বের মাধ্যমেই ইসলামপুর নিজেদের দখলে নেওয়ার যুদ্ধে নেমে পড়ল চার প্রধান দলই

ইসলামপুর বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক কানাইয়ালাল আগরওয়ালকে রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী করায় সেই ইসলামপুর বিধানসভা কেন্দ্রটি ফাঁকা হয়ে যাওয়ায় এবার সেখানে উপনির্বাচন ঘোষণা হওয়ায় তৎপর সমস্ত রাজনৈতিক দলই। ইতিমধ্যেই এই কেন্দ্রটি দখল করতে সমস্ত রাজনৈতিক দলের প্রার্থী ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। আর সেইমতো সোমবার এই ইসলামপুর বিধানসভা উপনির্বাচনে চার রাজনৈতিক দলের

ভাটপাড়ায় মনোনয়নের দিনেই বিজেপি প্রার্থীর গাড়ি ভাঙচুর, চলল গুলিও, অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

এবার ভাটপাড়া বিধানসভা উপনির্বাচনে শাসক-বিরোধী সমস্ত দলের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ায় তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ল। বস্তুত, এই ভাটপাড়া বিধানসভায় তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিংহ সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। আর এরপরই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদীর বিরুদ্ধে বিজেপির পক্ষ থেকে সেখানে প্রার্থী করা হয় সেই অর্জুন সিংহকে। এদিকে অর্জুন

আসানসোলে বাবুল সুপ্রিয়র জয় নিশ্চিত করতে আসরে বামকর্মীরা বলে অভিযোগ তৃণমূলের

এবারের লোকসভা নির্বাচনে বিভিন্ন প্রচার সভায় গিয়ে বাম এবং রাম এক হয়ে তৃণমূল কংগ্রেসকে আটকানোর চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ জানিয়ে এসেছেন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের নেতারা। যদিও বা বরাবরই এই অভিযোগকে অস্বীকার করে এসেছে বাম এবং বিজেপি। তবে এবার চতুর্থ দফার ভোটে সেই আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার দিনই

অধীর চৌধুরীকে “বহরমপুরে” আটকে দিয়ে অন্য জায়গায় “ভোট করাল” একদা তাঁর ঘনিষ্ঠরাই

নির্বাচনী প্রচারসভায় গিয়ে যেনতেন প্রকারেন এই বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রে এবার কংগ্রেসের অধীর চৌধুরীকে হারিয়ে সেখানে ঘাসফুল ফোটাতে হবে বলে দলীয় নেতৃত্বকে নির্দেশ দিয়েছিলেন মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। আর দলীয় নেতার এহেন নির্দেশ পেয়েই চতুর্থ দফায় গতকাল সেই বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচনে তৃণমূলের পক্ষেই যাতে সমস্ত ভোট থাকে তার জন্য

রাজীবকুমারকে গ্রেফতারি প্রসঙ্গে বড়সড় ধাক্কা সিবিআইয়ের,জেনে নিন

সারদা চিটফান্ড কান্ড নিয়ে রাজ্যের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করতে চেয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল সিবিআই। আজ এদিন সেই নিয়েই বড়সড় ধাক্কা খেলো এই তদন্তকারী সংস্থা। শীর্ষ আদালত জানিয়েছে যে, রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে প্রমাণ দাখিল করার পরেই সিবিআই রাজীব কুমারকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি পাবে। জানা যাচ্ছে

কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার না করে রাজ্য পুলিশ দিয়ে ভোট, কমিশনের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক কংগ্রেস

নির্বাচনের দামামা বাজবার অনেক আগে থেকেই নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়ে রাজ্য পুলিশকে না দিয়ে যাতে সমস্ত বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করে নির্বাচন সম্পন্ন করা যায় তার জন্য দাবি জানিয়েছিল বিরোধীরা। আর সেইমত প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফায় কেন্দ্রীয় বাহিনী আরও বেশি করে বাড়ানোর জন্য বিরোধীদের তরফে দাবি করা হলে চতুর্থ

বাংলায় চতুর্থ দফা – অভিযোগ 2000, গ্রেপ্তার 145, চার বিধানসভাতে পুনর্নির্বাচনের দাবি বাম- বিজেপির

প্রথম থেকে যেমনটা আশঙ্কা করা হচ্ছিল, ঠিক তেমনটাই হল। অনেকেই বলেছিলেন, বিগত তিন দফার ভোটে তেমনভাবে কোনো অশান্তি বা বিরোধীদের তরফে নির্বাচন কমিশনের কাছে ভোট নিয়ে তেমন কোনো অভিযোগ জমা না পড়লেও চতুর্থ দফার ভোটে সেই অশান্তির পরিমাণ যেমন বাড়তে পারে, ঠিক তেমনি বিরোধীদের তরফে অভিযোগের পরিমাণও বাড়তে পারে। আর

আরামবাগে তৃণমূল প্রার্থীর প্রচারে বাইক মিছিলের শেষে মর্মান্তিক মৃত্যু পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতির

তীব্র গরমে যাতে নির্বাচনকে দীর্ঘমেয়াদি না করে স্বল্পমেয়াদী করা যায় তার জন্য প্রথম থেকেই নির্বাচন কমিশনের কাছে দাবি জানিয়ে আসতে দেখা গেছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে। কিন্তু বিরোধীরা বলছে বাংলায় গণতন্ত্র নেই। আর বিরোধীরা বাংলার মানুষের সর্বনাশ করে মানুষকে বিপদে ফেলতেই সাত দফা নির্বাচন করার কথা বলে বাংলায় নির্বাচন

বাংলায় কেন বিজেপি নেতাদের ঘন ঘন হেলিকপ্টার নামছে ব্যাখ্যা করলেন শুভেন্দু অধিকারী

বিজেপি যখন বাংলায় 42 টি আসনের মধ্যে 22 থেকে 23 টি আসন দখলের জন্য যখন বাংলায় বাড়তি নজর দিয়েছে গেরুয়া শিবির, ঠিক তখনই পাল্টা বিজেপি এবার কিছুই করতে পারবে না বলে বিভিন্ন জনসভা থেকে তোপ দাগতে শুরু করেছেন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা নেত্রীরা। আর এবার সেই নরেন্দ্র মোদির

Top
error: Content is protected !!