এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > অধীরের কংগ্রেসের ভবিষ্যৎ নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন শুভেন্দু

অধীরের কংগ্রেসের ভবিষ্যৎ নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন শুভেন্দু

২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনকেই লক্ষ্যভেদ করতে মরিয়া দেশের বিরোধীদলগুলো। সেই পথে হাঁটছে পশ্চিমবঙ্গও। সম্প্রতি হয়ে যাওয়া পঞ্চায়েত নির্বাচন প্রমাণ করে দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের সংখ্যাগরিষ্ঠতা। তবে দিকে দিকে বিরোধীশিবিরের উত্তাপ বাড়াতে সামনে আসছে চমকে দেওয়ার মতো খবর। বর্তমানে খবরের শিরোনামে রয়েছে পলাশীর যুদ্ধের ক্ষেত্রভূমি মুর্শিদাবাদ। জানা যাচ্ছে ওখানে পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফলাফলের পর কংগ্রেস শিবিরে ফাটল ধরেছে। অধীর চৌধুরীর দল ছেলে এদিন কংগ্রস বিধায়ক আশিস মার্জিত নাম লেখালেন ঘাসফুলদলে। তাঁর এই কংগ্রেস থেকে হঠাৎ সরে যাওয়ার ঘটনা নিয়ে গুঞ্জণ শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। চাপে রয়েছে কংগ্রেসপার্টি। এমনটাই জানা যাচ্ছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

কিন্তু কেন তাঁর এমন সিদ্ধান্ত? জবাবে আশিসবাবু জানান যে কংগ্রেসে থেকে উন্নয়ন করা সম্ভব নয়। তাই মানুষের জন্য উন্নয়নের স্বার্থে তিনি তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন।এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসায় সরব হয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তির্যক ভঙ্গিতে তিনি রাজ্যের হাতপার্টির উদ্দেশ্যে বলেন যে আগামী তিন মাসের ভিতর নাকি জেলার সব কংগ্রেস বিধায়ক তৃণমূলে নাম নথিভুক্ত করবে। আর এটা হবে লোকসভা ভোটের আগেই। দলের ঝান্ডা নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকবেন কেবল জগাই মাধাই ওরফে অধীর চৌধুরী এবং মনোজ চক্রবর্তী। তিনি জানান যে অধীর চৌধুরীর বিজেপিতে যোগ দেওয়া উচিৎ। পঞ্চায়েত নির্বাচনে হেরে তিনি সম্বিত হারিয়েছেন বলেও ব্যঙ্গ করেন শুভেন্দুবাবু। এছাড়াও তিনি বিজেপি বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক হওয়ার অভিযোগ তোলেন এবং বলেন যে এ বঙ্গের লাগাম বিজেপির হাতে কখনোই আসবে না। দেশের পেট্রোপন্যের মূল্যবৃদ্ধির জন্যে একমাত্র বিজেপিই দায়ী,এমনটাই বলেছিলেন তিনি খড়গ্রামের এক ইফতার পার্টিতে যোগ দেওয়ার পর। এছাড়া রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে জানা যাচ্ছে যে, এদিন বরোঞার একঘড়িয়া গ্রামে গিয়ে পঞ্চায়েত পর্বের সন্ত্রাসের জেরে খুন হওয়া ব্যক্তির স্ত্রীকে ২ লক্ষ টাকার চেক ক্ষতিপূরণ হিসাবে দিয়ে এসেছেন শুভেন্দু অধিকারী।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!