এখন পড়ছেন
হোম > 2018 > November

রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকদের পিআরটি স্কেলের দাবিকে জোরদার করতে আগামীকাল বিজেপি-বাম-কংগ্রেসকে একমঞ্চে আনার প্রচেষ্টা

যতদিন যাচ্ছে ততই রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে নিজেদের 'বঞ্চনা' নিয়ে আন্দোলন জোরদার করছেন রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকরা। এর আগে, পিআরটি স্কেলের দাবিতে শহীদ মিনারের পাদদেশে প্রাথমিক শিক্ষকদের সংগঠন উস্থি ইউনাইটেড প্রাইমারি টিচার্স অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন বা ইউইউপিটিডব্লুএ অক্টোবরের শেষে দুদিন ব্যাপী মহা আন্দোলন করে ঝড় তুলে দিয়েছিল। সেই প্রথম শিক্ষকদের সমর্থনে রাজনৈতিক দূরত্ত্ব

খাদ্যসামগ্রীর সঠিক গুণগত মান ও পরিমাণ এবং রেশন ডিলারদের কমিশন বৃদ্ধি নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত জানালেন খাদ্যমন্ত্রী

রাজ্যের কোনো মানুষ যাতে খাদ্যাভাবে না থাকেন সেদিকে কড়ার নড়রদারি চালাতে নির্দেশ রেশন ডিলারদের। পাশাপাশি রেশনের খাদ্যসামগ্রীর গুনগত এবং পরিমানগত মান বজার রাখারও সতর্কতা জারি করলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। এর সঙ্গে এটাও জানিয়ে দিলেন, এই মুহূর্তে ডিলার-ডিস্ট্রিবিউটরদের কমিশন বাড়ানো কোনোভাবেই সম্ভব নয়। গতকাল খাদ্যভবনে রেশন ডিলারদের কয়েকটি সংগঠনকে বৈঠকে ডেকে

গণসংগঠনের পথে নামার ডাকে স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া, তৃণমূল-বিজেপির লড়াইয়ের মাঝে নতুন করে জায়গা বামেদের

রাজ্য থেকে জোড়ফুল উৎখাত করে পদ্ম ফোটাতে গনতন্ত্র বাঁচানোর শ্লোগান নিয়ে ডিসেম্বরে রথযাত্রার বৃহত্তর কর্মসূচি রয়েছে বিজেপির। তারপরের দিন বিজেপিকে পাল্টা দিতে 'পবিত্র যাত্রা' করে বাংলায় সংহতির বার্তা দিতে পথে নামবে তৃণমূল। তবে এই গনতন্ত্র বাঁচাও প্রচার কর্মসূচির প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে থাকতে চায় না বামফ্রন্ট। যদিও এই বিভেদের রাজনীতির মাঝে পড়ে

পিবি এক্সক্লুসিভ: এই মুহূর্তে লোকসভা ও বিধানসভা ভোট হলে কি হবে বহরমপুরের চিত্র?

এগিয়ে আসছে লোকসভা নির্বাচন - আর তার সাথেই বাড়ছে রাজ্যজুড়ে রাজনৈতিক উত্তাপ। একদিকে যখন তৃণমূল নেত্রীর ৪২-এ-৪২ করার ডাক, অন্যদিকে তখন গেরুয়া শিবিরের রাজ্য থেকে ২২ টি আসন জয়ের দাবি। পিছিয়ে নেই বামফ্রন্ট বা কংগ্রেসও, ২০১৬ বিধানসভার মত আবারো জোট করে তৃণমূল-বিজেপির সব অঙ্ক তারা গুলিয়ে দেবে? প্রশ্ন অনেক -

সর্বভারতীয় স্তরের সঙ্গে সাযুজ্যপূর্ণ বেতনক্রমের দাবিতে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের মামলায় সামনে এল কলকাতা হাইকোর্টের রায়

কলকাতা হাইকোর্টের ১২ নম্বর কোর্টে বিচারপতি ববি শরাফের এজলাসে পশ্চিমবঙ্গের সরকার পোষিত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শতাধিক গ্র্যাজুয়েট শিক্ষক-শিক্ষিকাদের টিজিটি বেতনক্রমের দাবিতে করা মামলার শুনানি শেষে রায় ঘোষণা হয়। রায়ে রাজ্যের বর্তমান ষষ্ঠ পে কমিশন, শিক্ষা দপ্তর এবং অর্থ দপ্তরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যেন তারা যৌথ ভাবে বিষয়টি যথাযথ খতিয়ে দেখে এই

যুবরাজের খাসতালুকে নৃশংসভাবে আক্রান্ত বিজেপি পদাধিকারীরা, অভিযোগের তীর শাসকদলের দিকে

এবার খোদ তৃণমূল যুবরাজ তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের খাসতালুক ডায়মন্ডহারবারের 9 এবং 10 নম্বর ওয়ার্ডে বিরোধী বিজেপি কর্মীদের উপর শাসকদলের কর্মীদের সন্ত্রাসের অভিযোগ অভিযোগ ওঠায় প্রবল চাঞ্চল্য তৈরি হলো রাজ্য রাজনীতিতে। সূত্রের খবর, গত বৃহস্পতিবার ভোরে ডায়মন্ডহারবারের 9 এবং 10 নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মানস বসু ও শান্তি বাহাদুরের বাড়িতে হামলা

অর্থের জন্য থমকে যাবে না উন্নয়ন, 52 টি দপ্তরের অর্থ যোগানের জন্য নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের

এবার রাজ্যের উন্নয়নের গতিকে আরও ত্বরান্বিত করতে এবং সাধারণ মানুষের কাছে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর গুলির উদ্যোগে পৌঁছে যাওয়া বিভিন্ন জনমুখী পরিষেবা আরও দ্রুত পৌঁছে দিতে রাজ্যের 12 টি দপ্তরের 100% বরাদ্দ টাকাই ছেড়ে দিল রাজ্য অর্থ দপ্তর। যার মধ্যে রয়েছে, আবাসন, সেচ, জনস্বাস্থ্য কারিগরি, পূর্ত, নারী, শিশু, সমাজকল্যাণ, পুর ও

গ্রুপ ডি কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়াকে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা, ঝুলে রইল চাকরিপ্রার্থীদের ভবিষ্যৎ

অবশেষে রাজ্যের শীর্ষ আদালতে গ্রুপ ডি কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে মামলা হল। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের 28 শে সেপ্টেম্বর এই গ্রুপ ডি কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়ায় একটি বিজ্ঞাপন প্রকাশিত হয়। যেখানে বর্তমান শূন্যপদের সংখ্যা 221 দেখিয়ে একটি বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। আর এরপরই এই ঘটনায় এই গোটা নিয়োগ প্রক্রিয়াকে চ্যালেঞ্জ করে মামলা করেন

অবাক কর্মসংস্থান! সাড়েনশো রাজ্য সরকারি পদের জন্য ১১ লক্ষেরও বেশি আবেদন – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যে ক্রমবর্ধমান বেকারত্বে ছবি আরো একবার প্রকাশ্যে এল রাজ্যের খাদ্য দপ্তরের ফুড ইন্সপেক্টর পদের চাকরির সূত্রে। গত ২২ আগষ্ট ফুড ইন্সপেক্টর পদে কর্মী নিয়োগের জন্যে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল পিএসসি। ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবেদন জমা পড়েছে। মোট ৯৫৭ টি পদে নিয়োগের জন্যে আবেদন জমা পড়েছে ১১ লক্ষ ৬ হাজার ৩৪৭ টি।

উপচে পড়া ভিড়কে সাক্ষী রেখে দেশের ঐক্য-সংহতি রক্ষায় নতুন স্লোগান প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

১৯' এর নির্বাচনকে দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে বঙ্গের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটাই লক্ষ্য এখন- বিজেপি সরকার উৎখাতে জনমত একত্রিত করা। প্রস্তুতিটা শুরু হয়ে গিয়েছে মাসকয়েক আগে। তবে তার আগে বছর ঘুরতেই রয়েছে বিগ্রেড সমাবেশ। সেই বৃহত্তর ১৯'এর সমাবেশে বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে এক ছাতার তলায় এনে লোকসভা ভোট জয়ের ডাক দেবেন নেত্রী। সূত্রের

Top
error: Content is protected !!