এখন পড়ছেন
হোম > 2018 > August (Page 2)

জল্পনা বাড়িয়ে রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বিশেষ বৈঠকে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী

বৃহস্পতিবার দিল্লী সফরে গেলেন কর্ণাটকএর মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারস্বামী। তাঁর দিল্লী সফরের প্রধান উদ্দেশ্য ছিলো মূলত একটাই তা হলো কংগ্রেস সভাপতির সাথে বৈঠক করা। এদিন কর্ণাটক মন্ত্রীসভার সম্প্রসারণের দাবি নিয়ে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর বাসভবনে গিয়ে তিনি বৈঠক করলেন। রাহুল গান্ধীকে  কর্নাটক সরকারের ১০০ দিনের কাজের খতিয়ান পেশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। সূত্র

দিন দিন বাড়ছে মৌসম-ডালুর তৃণমূল ‘প্রেম’ – আতঙ্কিত কংগ্রেস-কর্মীদের চিঠি খোদ রাহুল গান্ধীকে

রাজ্যে বিরোধী দল হলেও কংগ্রেসের  সংগঠনের ভগ্নপ্রায় দশা। নিজেদের অস্তিত্ব সংকট রুখতে বেশ কিছুদিন আগেই তৃনমূলের সাথে তাঁদের জোট চেয়ে তৃনমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে এসেছিলেন মালদহের গনি পরিবারের সদস্য তথা কংগ্রেস সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী। যার জেরে প্রদেশ কংগ্রেসের অন্দরে তীব্র সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছিল তাকে।

গ্রামসভা ছাড়িয়ে এবার তৃণমূল ও যুবর মধ্যে অশান্তির আগুন পঞ্চায়েত সমিতিতেও

কথায় আছে, সকালটা দেখলেই বোঝা যায় সারা দিনটা কেমন যাবে! ঠিক তেমনি রাজ্যে পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন নিয়ে শাসক বনাম শাসকের লড়াই দেখে অনেকের মনেই আশঙ্কার মেঘ ঘনীভূত হয়েছিল যে, সামান্য পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন ঘিরেই যদি এত লড়াই হয় তবে পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলাপরিষদে কি হবে? এবার সেই আশঙ্কাকে সত্যি করে

নতুন মোড়কে হাজির হতে চলেছে সঙ্ঘ? সংবাদপত্রের রিপোর্ট ঘিরে জল্পনা চরমে

"কট্টর হিন্দুদের মত সাম্প্রদায়িক ভেদাভেদের চেষ্টা করছে আরএসএস"- দীর্ঘদিন ধরে সঙ্ঘ পরিবারের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করে আসছে বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। যা নিয়ে সাধারন মানুষের মনেও এই সঙ্ঘের ভাবমূর্তি ধাক্কা খেয়েছে। এবারে তাই সেইসব '‌মন্দ'‌ ধারণা দূর করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অনুসরণ করে বিপণনের পথই ধরতে চাইছেন তাঁরা-এমনটাই দাবি কলকাতার

ভারতের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী ঠিক হয়ে যাবে মাত্র ৫ মিনিটেই! সামনে এল বিস্ফোরক দাবি

বিজেপি বিরোধী মহাজোট তো তৈরি হয়েছে। কিন্তু সেই মহাজোট যদি ক্ষমতায় আসে তবে কে হবেন তার প্রধানমন্ত্রী? বিভিন্ন সময়েই এই কথা বলে বিরোধী জোটকে ভেস্তে দিতে চেয়েছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। মাঝে কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধী ঘোষনা করেছিলেন যে এই মহাজোটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা মায়াবতী প্রধানমন্ত্রী হলে কোনো অসুবিধে নেই। অনেকে

ছাত্রছাত্রীদের সুখবর শুনিয়ে নতুন পদক্ষেপ নিল রাজ্য সরকার

রাজ্যের শিক্ষাব্যাবস্থাকে ঢেলে সাজাতে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দুস্থ ও মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের কাছে আর্থিক প্রতীকূলতা যাতে বাধা হয়ে না দাড়ায় তার কারনে অতীতে বহু প্রকল্পও চালু করেছে সরকার। এবারে ফের রাজ্যের মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের জন্য বিশেষ পদক্ষেপ নিল রাজ্য। কিন্তু কী সেই পদক্ষেপ? সূত্রের খবর, উচ্চশিক্ষা লাভের জন্য শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন

বোর্ড দখল করতেই গেরুয়া শিবিরের অস্ত্র নিয়ে মিছিল – তীব্র বিতর্ক শুরু রাজ্য জুড়ে

রামনবমী, হনুমান জয়ন্তীর নামে রাজ্যজুড়ে বিজেপির অস্ত্র মিছিল সবাই দেখেছে। ধর্মের নামে অস্ত্র নিয়ে মানুষের মনে ভীতি সঞ্চার করাই বিজেপির মূল উদ্দেশ্য বলে বারাবার গেরুয়া শিবিরের উদ্দেশ্যে তোপও দেগেছে রাজ্যের শাসকদল। কিন্তু ধর্মের নামে গেরুয়া শিবিরের সেই অস্ত্রপ্রদর্শন এবার পৌছে গেল নির্বাচনের বিজয়উল্লাসেও। সূত্রের খবর, মালদহের গাজোলের 15 টি পঞ্চায়েতের

তৃণমূলের রাস্তা খোলা রাখতেই কি নিজের গড়ে বড় বার্তা মৌসম বেনজির নূরের? জল্পনা তুঙ্গে

রাজ্যে সংগঠনকে বাচাতে তৃনমূলের সঙ্গে সমঝোতা করার পক্ষে প্রদেশ কংগ্রেসের অন্দরে বারবার দাবি জানিয়ে এসছেন মালদার গনি পরিবারের দুই কংগ্রেস সাংসদ। কিন্তু প্রদেশ সভাপতি অধীর চৌধুরীর "না" এর কাছে কার্যত হার স্বীকার করতে হয়েছে তাঁদের। তবে রাজ্যে তা অধীরবাবুর বাধার কারনে না হলেও নিজেদের গড় মালদাতে পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনে সেই

সংখ্যালঘু ‘উন্নয়নের’ তথ্যই নেই প্রশাসনের কাছে! ক্ষুব্ধ কমিশনের চেয়ারম্যান আবু আয়েশ মন্ডল

বীরভূম জেলায় ওয়াকফ বোর্ডের জমির পরিমান কত? নিজ ভূমি নিজ গৃহ প্রকল্পে কতজন সংখ্যালঘু বাড়ি পেয়েছেন? এসব প্রশ্নের উওর খুঁজতে বসে ক্ষুব্ধ হয়ে পড়লেন রাজ্য সংখ্যালঘু কমিশনের চেয়ারম্যান আবু আয়েশ মণ্ডল। এদিন সিউড়িতে জেলা সংখ্যালঘু দপ্তরের উন্নয়নের গতিপ্রকৃতি নিয়ে রিভিউ মিটিং করেন চেয়ারম্যান। জেলাশাসক, তিন মহকুমার এসডিও এবং বিডিওরা উপস্থিত

ফেডারেল ফ্রন্ট ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে বড়সড় অভিযোগ করলেন কংগ্রেস নেত্রী

দেশজুড়ে বিজেপিকে আটকাতে তৈরি হয়েছে বিরোধীদের মহাজোট। যেখানে কংগ্রেস এবং তৃনমূলের মত রাজনৈতিক দলগুলোও রয়েছে। কিন্তু কেন্দ্রে কংগ্রেসের সাথে তৃনমূলের সখ্যতা থাকলেও রাজ্যে সেই তৃনমূল এবং কংগ্রেসের মধ্যে আদায় কাচকলায় সম্পর্ক। সারা ভারতে মোদী বিরোধী জোটে থাকলেও রাজ্যে সেই তৃনমূল শাসকদল হওয়ার সুবাদে কংগ্রেসের কর্মীদের প্রতি সন্ত্রাস চালাচ্ছে এই অভিযোগ

Top
error: Content is protected !!