এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ১৭৭ জন জনপ্রতিনিধির গন-পদত্যাগ, তুলকালাম গেরুয়া সাম্রাজ্যের ত্রিপুরাতে

১৭৭ জন জনপ্রতিনিধির গন-পদত্যাগ, তুলকালাম গেরুয়া সাম্রাজ্যের ত্রিপুরাতে

উত্তর পূর্ব ভারতের রাজ্য ত্রিপুরায় আড়াই দশকের বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে স্মরনীয় জয়লাভ করে গেরুয়া শিবির। ক্ষমতায় আসার পর থেকেই বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক ঘটনার সাক্ষী ত্রিপুরার সাধারণ মানুষ। বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভ পরবর্তীতে বাম আমলে নির্মিত বহু মর্মর মূর্তি রাজনৈতিক দুষ্কৃতিদের হাতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এরপরে হিসেব করে দেখা গেছে নতুন সরকার রাজ্যের দায়িত্ব ভার নেওয়ার পর সারা রাজ্যের মোট ১৭৭ জন জনপ্রতিনিধি নিজেদের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। এরমধ্যে উল্লেখ্য বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েতের ১৬৬ জন জনপ্রতিনিধি, ২ জন পঞ্চায়েত সমিতির প্রতিনিধি ও ৯ জন ত্রিপুরা আদিবাসী এলাকার স্বতন্ত্র জেলা পরিষদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই বিষয়ে বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, বিজেপি ও আইপিএফটি-র জোট সরকার ক্ষমতায় এলেও কোনও জনপ্রতিনিধি জোর করে ইস্তফা দিতে বাধ্য হননি। অনেকে অসুস্থতার জন্য সরে গিয়েছেন। তবে এতো জন জনপ্রতিনিধির একসাথে ইস্তফা দেওয়ার জন্যে কোনো কারণ আছে কী না সেই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। এদিকে রাজ্যের প্রধান বিরোধী সিপিএম, শাসক দল বিজেপির বিরুদ্ধে অনেক জায়গায় জোর করে পার্টি অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ আনলে মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, কোথাও জোর করে সরকারি জমি দখল করলে বা পার্টি অফিস দখল করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আবার কোনও বিধায়ক মিথ্যা অভিযোগ করলেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সবমিলিয়ে ত্রিপুরাতে ক্ষমতায় এসেই সপ্তম বেতন কমিশন চালু করে যেমন হইচই ফেলে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব, তেমনই হঠাৎ করে ‘অসুস্থতার’ জন্য ১৭৭ জন জনপ্রতিনিধি গন-পদত্যাগ করায় তা নিয়েও যথেষ্ট শোরগোল উঠেছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!