এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এবার সন্ধান মিলল প্রায় 100 কোটি টাকার জিএসটি ফাঁকি দেওয়ার বড়সড় প্রতারণা চক্র

এবার সন্ধান মিলল প্রায় 100 কোটি টাকার জিএসটি ফাঁকি দেওয়ার বড়সড় প্রতারণা চক্র

প্রতারণা চক্র যে চলছে তার খবর আগে থেকেই ছিল। আর সেইমত বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় জিএসটি অফিসের পক্ষ থেকে এই জিএসটি প্রতারণার কাজে যুক্ত থাকা একটি চক্রকে হাতেনাতে ধরা হল। সূত্রের খবর, সেন্ট্রাল জিএসটি এবং সেন্ট্রাল এক্সাইজ দপ্তরের পক্ষ থেকে এই ঘটনায় মোট চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই এই ধৃতদের আলিপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক তাদের 10 জুন পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

জানা গেছে, প্রায় 721 কোটি টাকার জাল ব্যবসা করে এই ধৃত ব্যক্তিরা জিএসটি প্রতারণা করেছে। যার ফলে সরকারের প্রায় 100 কোটি টাকার মতো রাজস্ব ক্ষতি হয়েছে। তবে এটা প্রথম নয়, এর আগেও জিএসটি ফাঁকি দেওয়ার কারবার চালানো একটি চক্রকে কলকাতা থেকে গ্রেপ্তার করা হলে প্রায় 100 কোটি টাকার মতো জিএসটি ফাকির ঘটনা সামনে এসেছিল। এই ঘটনায় তদন্তকারী দলে থাকার চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট অরবিন্দকুমার মুনকা, সঞ্জয়কুমার পন্ডিত, এবং তার দুই সহযোগী নগেন্দ্র কুমারদুবে এবং বিজয়কুমার রাজপুরিয়ার ইতিমধ্যেই প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছেন।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

যেখানে জানা গেছে যে, 721.19 কোটি টাকার যে ভুয়ো কারবারের হদিস পাওয়া গেছে, তাতে 98.77 কোটি টাকার কর ফাঁকি রয়েছে। তবে এই কর ফাঁকির অঙ্ক 200 কোটি টাকা ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে। তদন্তকারীদের মতে, সাধারণ মানুষকে ভুয়ো সংস্থার মালিক বানিয়ে তাদের অজান্তেই কেউ কেউ এই ধরনের অসাধু ব্যবসা করছে। আর সাধারণ মানুষ বিশ্বাস করে নিজেদের সমস্ত ব্যক্তিগত তথ্য অন্যদের হাতে তুলে দেওয়াতেই এই সমস্যা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মত একাংশের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!