এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বড় ধাক্কা বিজেপিতে, ১০ কাউন্সিলর দল ছেড়ে যোগ দিলেন কংগ্রেসে

বড় ধাক্কা বিজেপিতে, ১০ কাউন্সিলর দল ছেড়ে যোগ দিলেন কংগ্রেসে

সদ্য গুজরাটে অন্যতম কঠিন বিধানসভা নির্বাচন জিতে ষষ্ঠ বারের জন্য রাজ্যে সরকার করেছে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহের বিজেপি। কিন্তু গুজরাট জুড়েই যে ক্ষোভের আঁচ ধিকিধিকি জ্বলছে প্রমান হয়ে গিয়েছিল সেই নির্বাচনেই। আর এবার সেই গুজরাটেই বড়সড় ধাক্কা খেল মোদী শিবির। সূত্রের খবর অনুযায়ী, মেহসানায় গেরুয়া শিবিরের ১০ জন কাউন্সিলর যোগ দিলেন কংগ্রেসে, ফলে বিজেপির হাতে থাকা পুরসভা গেল কংগ্রেসের হাতে।
দলবদল করে একটা পুরসভা যাওয়াতে জাতীয় রাজনীতিতে হঠাৎ করে শোরগোল পরে গেল কেন? তার কারণ, মেহসানার রাজনৈতিক গুরুত্ব। প্রথমত, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্মস্থান বডগাঁও এই বিধানসভা কেন্দ্রেরই অন্তর্গত। দ্বিতীয়ত, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী আনন্দীবেন প্যাটেলই হোন বা বর্তমান উপমুখ্যমন্ত্রী নীতিন প্যাটেল – সকলেই নির্বাচিত হয়েছেন এই মেহসানা থেকেই। তৃতীয়ত, ২০১৫ সালের নভেম্বরে মেহসানায় ৪৪ টির মধ্যে ২৯ টি আসন পায় কংগ্রেস, কিন্তু এক বছরের মধ্যেই ‘বিক্ষুব্ধ’ ১০ জন কংগ্রেস কাউন্সিলরকে দলে নেন অমিত শাহরা, পুরসভা আসে বিজেপির দখলে। সেই পুরসভাই কংগ্রেস একই ‘কৌশলে’ পুনরুদ্ধার করায় আঙ্গুল তুলতে পারছে না বিজেপি। চতুর্থত ও সবথেকে গুরুত্ত্বপূর্ন, এখানকার বিধায়ক তথা রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী নীতিন প্যাটেল কিছুদিন আগেই নিজের ক্ষোভ জানিয়ে মন্ত্রীত্ত্ব গ্রহণ করতে অস্বীকার করেছিলেন, শেষমুহূর্তে আসরে নেমে পরিস্থিতি সামাল দিয়েছিলেন খোদ অমিত শাহ, আর সেই নীতিন প্যাটেলের ‘আপন দেশেই’ এই পালাবদলে দলের মধ্যে বড়সড় ভাঙ্গনের গন্ধ পাচ্ছেন অনেক রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞই। ফলে সব মিলিয়ে একটা পুরসভা বিজেপির হাত থেকে কংগ্রেস ছিনিয়ে নিতেই দেশজুড়ে রীতিমত শোরগোল পরে গেল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!